গসিপবিনোদনসিনেমা

একসময় পেটের দায়ে লোকের টেবিলে খাবার দিতেন!এখন সেই লাস্যময়ী নোরা কাঁপাচ্ছেন বলিউড

এখনকার দিনে বিটাউনের অন্যতম লাস্যময়ী নায়িকা নোরা ফতেহি (Nora Fatehi)। তাঁর নাচের ছন্দে কাবু গোটা দেশ। আর এখন বলিউডে আইটেম ডান্স মানেই পরিচালকদের পছন্দের তালিকায় প্রথমেই রয়েছে নোরা ফাতেহির নাম। এই মুহুর্তে জনপ্রিয়তার একেবারে শীর্ষে রয়েছেন তিনি, তাই এক ডাকে গোটা দুনিয়া চেনে তাঁকে। তবে সাফল্য কারও জীবনেই রাতারাতি আসে না। ব্যাতিক্রম নন নোরাও।

আজ তিনি সাফল্যের যে চূড়ায় রাজ করছেন সেখানে পৌছানোর যাত্রাপথ মোটেই সহজ ছিল না। তাঁর জীবনে একটা সময় এমনও ছিল যখন টাকা উপার্জন করতে রেস্তোরাঁর ওয়েটারের ( Waitress) কাজও করেছিলেন তিনি। তবে তার জন্য কোনো কালেই আফসোস ছিল না অভিনেত্রীর, আজও নেই। তাঁর মতে প্রত্যেকটা কাজই সমান গুরুত্বপূর্ণ।

Nora Fatehi নোরা ফাতেহি

এক সাক্ষাৎকারে নোরা জানিয়েছিলেন বিনোদন জগতে আসার আগে ১৬ বছর বয়স থেকে ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত ওয়েট্রেসের কাজ করেছিলেন তিনি। তাই নিজের অভিজ্ঞতা থেকে অভিনেত্রী বুঝেছেন একজন ওয়েট্রেস হিসাবে কাজ করা খুব কঠিন। এই কাজের জন্য একজন ব্যাক্তির যোগ্যতার কথা বলতে গিয়ে পুরনো স্মৃতির ডালি খুলে বসেন নোরা।

এরপরেই এই কাজের যোগ্যতা প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন ‘এই কাজের জন্য একজনের ভালো কমিউনিকেশন স্কিল থাকতে হবে, ভালো ব্যক্তিত্বের অধিকারী হতে হবে, দ্রুত নিজের কাজ করতে হবে, ভীষণ ভাল স্মৃতিশক্তি থাকা প্রয়োজন।’ সেইসাথে নোরার সংযোজন ‘অনেকসময়, খারাপ স্বভাবের গ্রাহকদের মুখোমুখি হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে। তাই এক্ষেত্রে সবরকম পরিস্থিতি সামলে নেওয়ার ক্ষমতা থাকাও প্রয়োজন।’

এ প্রসঙ্গে নোরা জানান ‘তবে হ্যাঁ, এটা ঠিক তখন আমার অর্থ উপার্জনের একটু তাড়া ছিল। এটা একটা উপায় ছিল যার মাধ্যমে অন্য কিছু করার পাশাপাশি অর্থ উপার্জন করতে পেরেছিলাম। আসলে এটা আমাদের কানাডার প্রচলিত একটি সংস্কৃতি। ওখানে সবাই চাকরি করেন। সবাই, যেমন স্কুলে যান,তেমনি সকলে চাকরিও করেন।’

Related Articles

Back to top button