বিনোদনসিনেমা

সহ-অভিনেতার বন্দুকে গুরুতর জখম নোরা ফাতেহি! ভর্তি হতে হয় হাসপাতালেও

শ্যুটিং এর সময় action scene করার সময় বাস্তবেই গুরুতর আহত হয়ে পড়লেন নোরা ফাতেহি (Nora Fatehi)। অজয় দেবগনের (Ajay Devgan) বহু প্রতীক্ষিত ছবি ‘ভূজ: দ্য প্রাইড অফ ইন্ডিয়া’র (Bhuj: The Pride of India) শ্যুটিং এর সময়েই এই দুর্ঘটনা ঘটে। ইতিমধ্যেই এই ছবিতে নোরার ফার্স্ট লুক প্রকাশ্যে এসেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে নোরার কপালের গভীর ক্ষত থেকে চুঁইয়ে পড়ছে রক্ত। না, সেটি কোনো মেকাপের কারুকার্য নয়।

শট দেওয়ার সময় সহ-অভিনেতার বন্দুক এসে লাগে নোরার কপালে। গুরুতর জখম হন নোরা, পরে নির্মাতারা ছবিতে সেই শটটি ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নেন। এই ছবি নিয়ে এই নিয়েই বিশাল কৌতুহলী দর্শকেরা। ১৯৭১ সালের ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে তৈরী এই ছবিতে নোরা, অজয় বাদেও থাকছেন সঞ্জয় দত্ত, সোনাক্ষি সিনহা, শরদ কেলকরের মতো প্রথম সারির তারকারা।

অভিষেক দুধাইয়া পরিচালিত ‘ভুজ: দ্য প্রাইড অব ইন্ডিয়া’র সেটে ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে নোরা জানান, আমরা action scene শ্যুট করছিলাম, পরিচালক সিঙ্গেল টেকেই শটটা নিতে চেয়েছিলেন। তাই আমি এবং আমার সহ-অভিনেতা রিহার্সাল করছিলাম। যেখানে আমার মুখে একটি বন্দুক ঠেকাতে যাবে ও এবং আমি এক ঝটকায় সেটা সরিয়ে নিয়ে ওকে মারতে শুরু করব’।

রিহার্সালে সব ‘ ওকে ‘ থাকলেও শ্যুটিং এর সময় ঘটে বিপত্তি, সত্যিকারের গুলি চলায় আহত হন নোরা। তিনি জানান, আমরা যখন আসল টেক শুরু করি তখন কো-অর্ডিনেশন ঠিক হয়নি। ভারী বন্দুকের নল নোরার কপালে লাগা মাত্রেই রক্ত বেরোতে শুরু করে। তখন তরিঘরি তাকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে।

এখানেই শেষ নয়। একই দিনে শ্যুটিংয়ে ফিরে আবার আহত হন নোরা। অ্যাকশন দৃশ্যে ছুটতে গিয়ে মাটিতে পড়ে গিয়ে পায়ের আঙুলে আঘাত লাগে তাঁর। কিন্তু সেই প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে নোরা এক সাক্ষাৎকারে বললেন, ‘‘বিকল্পের সাহায্য নিই না আমি। নিজেই করি সমস্ত অ্যাকশন দৃশ্য। তাই এই আঘাতের চিহ্ন আমার গর্ব হিসেবেই থেকে যাবে।’’

Related Articles

Back to top button