মাস্ক কেনার টাকা নেই! শেষমেশ বাবুই পাখির বাসা মুখে দিয়েই অফিসে হাজির ব্যক্তি


২০২০ এর শুরুতে সেই যে করোনা (Corona) এল সেই থেকে যাবার নাম নেই! মাঝে কিছুটা কমলেও বর্তমানে ফের মাথা চারা দিয়েছে করোনা। লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে প্রতিদিন। হাজারের কোটায় আসছে মৃত্যু সংবাদ। দেশের এমন ভয়াবহ পরিস্থিতি মানুষ ব্যাপক ভয় আর চিন্তার মধ্যে দিয়ে দিন কাটাচ্ছে। ইতিমধ্যেই দেশের কিছু কিছু জায়গায় পরিস্থিতি আরো বেশি খারাপ হওয়ায় পুনরায় লকডাউন করতে বাধ্য হয়েছে প্রশাসন।

সরকারের তরফে বারবার প্রচার করা হচ্ছে যাতে বাইরে বিনা প্রয়োজনে মানুষ না বেরোয়। আর যদিও বা বেরোয় তাহলে অবশ্যি যেন মুখে মাস্ক থাকে। কিন্তু এখনও এমন কিছু মানুষ রয়েছে আমাদের দেশের যাদের মাস্ক কেনার মত টাকাও নেই। সম্প্রতি এমনই এক চিত্র ধরা পড়েছে তেলেঙ্গানায়। সেখানে এক পশুপালক মাস্ক না কিনতে পেরে অভিনব এক মাস্ক পরে নিজের পেনশন নিজে হাজির হয়েছিলেন সরকারি অফিসে।

ছবির মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়া ওই ব্যক্তির নাম মেকালা কুরমাইয়া। পেশায় পশুপালক তিনি, তেলেঙ্গানার মেহবুবনগরের বাসিন্দা তিনি। পেনশন নিতে যাওয়ার জন্য মাস্ক লাগবে অথচ মাস্ক নেই তার। এদিকে তেলেঙ্গানায় মাস্ক না পরে রাস্তায় বেড়ালেই ১০০০ টাকা ফাইন। তাই শেষমেশ বাবুই পাখির বাসা দিয়েই মাস্ক বানিয়ে সেটা দিয়েই মুখ ঢেকে অফিসে হাজির হন তিনি।

মেকালা কুরমাইয়ার পাখির বাসা মাস্ক পড়া ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করা হলে তা বেশ ভাইরাল পরে। ছবিটির ভাইরাল হবার পরেই সোশ্যাল মিডিয়াতে যাদের মাস্ক কেনার টাকা নেই তাদের জাদে ফ্রীতে মাস্ক দেওয়া হয় তার দাবি ওঠে। নেটিজেনদের মতে সরকারের উচিত এই সমস্ত দরিদ্র লোকেদের মাস্ক বিলি করা।