উঁচু দাঁত, গায়ের রঙ কালো, গাঁইয়া সাজপোশাক ছেড়ে ‘নিরুপমা’ হঠাৎ হয়ে উঠলেন সুন্দরী


‘ওগো নিরুপমা’ ধারাবাহিকের শুরু হয়েছিল এক সমাজের চোখে ‘কুৎসিত’ মেয়ের গল্প দিয়ে৷ সুদর্শন স্বামীর স্ত্রী একজন সাদামাটা মেয়ে। শ্যামলা গায়ের রঙ, দাঁত উঁচু, সাজপোশাকেও রয়েছে গ্রাম্য ছাপ। স্বভাবতই এমন মেয়েকে স্ত্রী হিসেবে মেনে নিতে পারেননি উচ্চবিত্ত পরিবারের গুডলুকিং ছেলে আবীর রায়চৌধুরী।

এই ব্যতিক্রমী ভাবনাই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিল ধারাবাহিকের গল্প। দর্শকদেরও বেশ পছন্দ ছিল নিরুপমার লড়াকু ভাবধারা। স্বামীর কাছে গ্রহণযোগ্য না হলেও নিজের মেরুদণ্ড সোজা রেখে, আত্মসম্মান নিয়েই বাঁচছিল সে।

কিন্তু হঠাৎই কুৎসিত’ থেকে ‘সুন্দর’ হয়ে উঠেছে নিরুপমা। আর সুন্দর হয়ে উঠতেই আবীরেরও তার প্রতি প্রেম উথলে উঠেছে, শ্বশুর বাড়ির সকলেও করছে ধন্যি ধন্যি। নিরুপমার চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী অর্কজা আচার্য। হঠাৎ এই বদল কেন জানতে চাওয়ায় তার মত, প্রতি মুহূর্তে শ্বশুরবাড়িতে অত্যাচারিত হচ্ছিল নিরুপমা। সে সব থামাতে বদলের সত্যিই প্রয়োজন ছিল।

হঠাৎ ভোল বদলে ফরসা, তন্বী, স্মার্ট হয়ে উঠেছে নিরুপমা। দুর্ঘটনায় আহত হওয়ার পরে হাসপাতালে ভর্তি হতেই এই বদল তার৷ তবে দর্শকদের মত যেকারনে ‘ওগো নিরুপমা’ দেখতে পছন্দ করতেন তারা আর সেই কারণটাই নেই।

এই প্রসঙ্গে অর্কজা জানান, ‘‘ধারাবাহিকে নিরুপমার ২টো রূপই দেখা যাবে। সুন্দরের পাশাপাশি কুৎসিত নিরুপমাকেও দর্শক দেখতে পাবেন। নিরুপমাও এ ভাবে নিজেকে সাজিয়ে খুশি নয়। তার লক্ষ্য একটাই, সুন্দর আর কুৎসিত এই ২ রূপকে সামনে রেখে আবির তথা গোটা সমাজের চোখ খুলে দেওয়া।’’