খবরবিনোদন

ধোকা দিয়ে অন্য পুরুষের সাথে সংসার পেতেছেন নুসরত, ‘আজও ওকেই ভালোবাসি’ মন্তব্য নিখিলের

সম্প্রতি স্বামী নিখিল জৈনের (Nikhil Jain) কাছে কোর্টে মামলা করে হেরে দিয়েছেন টলিউডের অভিনেত্রী নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। গতবছরই নিখিলের সংসার ছেড়ে চলে এসেছিলেন অভিনেত্রী। এরপর থাকতে শুরু করেন যশ দাসগুপ্তের (Yash Dasgupta) সাথে, ইতিমধ্যে ঈশানের মা হয়েছেন। কিন্তু নিখিলের সাথে বিয়েটাই হয়নি মন্তব্য করেছিলেন নুসরত। এই মন্তব্যের পরে জানা যায় নিখিল বিবাহ বিচ্ছেদ মামলা করেছেন  নুসরতের বিরুদ্ধে কোর্টে।

ইতিমধ্যেই বিবাহবিচ্ছেদ মামলার রায় বেরিয়েছে। নুসরত ও নিখিলের মামলায় জয়ী হয়েছে নিখিলেরই। অর্থাৎ নিখিলের থেকে আলাদা হতে হলে আইনমতে ডিভোর্স দিতে হবে নুসরাতকে। তবে এতো কিছুর পরেও নুসরতকে ভুলতে পারছেন না নিখিল। সম্প্রতি সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তার বক্তব্য, ‘আমার আর  নুসরতের সম্পর্ক এখন আর নেই ঠিকই, তবে আমি কিন্তু এখনও নুসরতকেই ভালোবাসি’।

Nusrat Nikhil Divorce Case Next Date

যদিও নিখিলের মতে, যে নুসরতকে তিনি ভালোবাসেন তাঁর সাথে এখনের নুসরতের কোনো মিল নেই। যশ-সঙ্গিনী এই নুসরতকে তিনি চেনেন না। তবে সাথে নিখিল এও জানান , ‘ও অন্যের সাথে থাকছে, সন্তান হয়েছে কোনোদিনই কিছু বলিনি’। অর্থাৎ নুসরত ভালো থাকুক এটাই তিনি চান। এমনকি ঈশান হবার পর ঈশানকে আশীর্বাদ পর্যন্ত করেছিলেন নিখিল।

নুসরত-নিখিল বিচ্ছেদ মামলার রায় যেদিন বেরোয় সেদিন ছিল নিখিলের জন্মদিন। রায় প্রকাশের পর সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি নিখিল জানিয়েছিলেন, জন্মদিনে ইটা আমার কাছে সেরা উপহার। এতদিন পর অনেকটা শান্তি পেয়েছি। দীর্ঘদিন ধরে চলতে থাকা এই মামলার নিস্পত্তি হওয়ায় একপ্রকার নেটিজনরাও চিন্তামুক্ত হলেন ডিভোর্স হবে কি হবে না সেই নিয়ে!

প্রসঙ্গত, যে বিয়ে নিয়ে এই মামলা সেটা তুরস্কে ধুমধাম করে আয়োজন করা হয়েছিল। তবে ভারতীয় রীতি মেনে হয়নি বিয়ে, এমনকি রেজিস্ট্রি পর্যন্ত হয়নি। তাই নুসরত দাবি করেন, তাদের বিয়েটাই হয়নি। অন্যদিকে নিখিলের দাবি ছিল, বহুবার নুসরতকে রেজিস্ট্রীর কথা জানিয়েছিলাম। কিন্তু সেসবের কোনো কথাই কানে তোলেনি সে। তবে বর্তমানে নুসরত ও নিখিল দুজনেই একেবারে আলাদা পথের পথিক। নিখিল মন দিয়েছেন নিজের ব্যবসায় ও নুসরত নিজের সন্তান সংসার ও কেরিয়ারে।

Related Articles

Back to top button