খবর

কোরোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের মাঝেই ফের অশনি সংকেত! উপকূলে চোখ রাঙাচ্ছে আম্ফানের মত ঘূর্ণিঝড়

করোনা মহামারী কালেই আরো এক অশনি সংকেত মিলল আবহাওয়াবিদদের তরফে। গত বছর আম্ফানে বিধস্ত হয়ে গিয়েছিল ওড়িশার উপকূল থেকে পশ্চিমবঙ্গের বিস্তীর্ণ এলাকা। এবার ফের বড়সড় সাইক্লোনের পূর্বাভাস জানাল জাতীয় আবহাওয়া পরিষেবা। যেমনটা জানা যাচ্ছে সুপার সাইক্লোনের যাত্রাভিমুখ বঙ্গোপসাগর দিয়ে ওড়িশা উপকূলের দিকে রয়েছে।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে এই ঘূর্ণিঘড় বা সুপার সাইক্লোন ফণী বা আম্ফানের মতোই ক্ষতিকারক। যার ফলে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হবার সম্ভাবনা রয়েছে।  আবহাওয়াবিদদের মতে ঝড়ের অভিমুখ ওড়িশার দিকে। তবে ঘূর্ণিঝড় এলে পশ্চিমবঙ্গেও তার যথেষ্ট প্রভাব পড়বে। ঝড়ের অভিমুখের সামান্য পরিবর্তনেই বঙ্গে আম্ফানের স্মৃতি ফিরতে পারে বলেই আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বর্তমান পূর্বাভাস অনুযায়ী আগামী ১০ই মে বঙ্গোপসাগরে তৈরী হওয়া ঘূর্ণাবর্তের আকার নিতে পারে। এরপর ১৩ই মে ওড়িশার উপকূলীয় অঞ্চলে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড়টি। প্রতিমুহূর্তে শক্তি সঞ্চয় করে চলেছে এই ঘূর্ণিঝড়, মনে করা হচ্ছে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই শক্তি বাড়তে। এই সম্পূর্ণ খবরই মিলেছে মার্কিনি সংস্থা National Weather Service এর তরফ থেকে।

তবে ভারতীয় আবহাওয়া দফতরের কাছে এই সম্পর্কে এখনো কোনো আপডেট নেই।  ভারতীয় আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানা যাচ্ছে বঙ্গোপসাগরে এই মুহূর্তে কোনো ঘূর্ণাবর্ত সৃষ্টি হবার মত লক্ষণ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে এমন কোনো পরিস্থিতি তৈরী হলে তৎক্ষণাৎ তা জানানো হবে।

এছাড়াও ওড়িশার ভুবনেশ্বরের আবহাওয়া কেন্দ্র থেকে যেমনটা জানানো হচ্ছে, বর্তমানে ভয়ের কোনো কিছু  নেই। এই ধরণের কোনো ঘূর্ণিঝড়ের প্রবণতা আগামী ১০-১৩ই মে এর মধ্যে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। যদিও হয় তাহলে সেটি যে ক্ষতিকারক তীব্রতায় পৌঁছাবে সে বিষয়ে সন্দেহ রয়েছে। এবার আগামী কিছু দিনের মধ্যেই এই সমন্ধে বিস্তারিত জানা সম্ভব হবে।

Related Articles

Back to top button