বিনোদনসিরিয়াল

অসুস্থ কনীনিকা, বদলে যাবে সহচরীর মুখ! আসতে চলেছেন জনপ্রিয় নায়িকা 

রোজকার অবসর সময়ে টিভির পর্দায় পছন্দের টিভি সিরিয়াল দেখতে কে না ভালোবাসে। সিরিয়ালে পছন্দের চরিত্রদের না দেখা পর্যন্ত গোটা দিনটাই যেন অসম্পূর্ণ থেকে যায় দর্শকদের। তাই অভ্যাস মতোই প্রতিদিন প্রিয় সিরিয়াল দেখতে দেখতে সিরিয়ালের এই চরিত্ররাই কখন যেন দর্শকদের একেবারে ঘরের মানুষ হয়ে ওঠেন। ইদানিং দর্শকদের কাছে দারুন জনপ্রিয় স্টার জলসার এমনই একটি সিরিয়াল হল ‘আয় তবে সহচরী’ (Aye Tobe Sohochori)।

এই সিরিয়ালের নায়িকা সহচরি অভিনেত্রী কণীনিকা বন্দোপাধ্যায় (Konineeca Banerjee) হলেন এই সিরিয়ালের অন্যতম মূল আকর্ষণ। শুরু থেকেই তার অভিনয় মন ছুঁয়েছে দর্শকদের। মা হওয়ার পর বেশ কিছুদিন বিরতি নিয়ে এই সিরিয়ালের হাত ধরেই ছোট পর্দায় কামব্যাক করেছিলেন কণীনিকা। এই সিরিয়ালে যারা নিয়মিত দর্শক তারা সকলেই জানেন মাঝবয়সী সহচরির সংসার সামলে পড়াশোনা করার গল্প নিয়ে তৈরি হয়েছিল এই সিরিয়াল।


সেই সাথে এই সিরিয়ালের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো শ্বাশুড়ি সহচরী আর বৌমা বরফির অসমবয়সী বন্ধুত্ব। কলেজে পড়াশোনা করতে গিয়েই সহচরীর সাথে বন্ধুত্ব হয়েছিল মেয়ের বয়সী বরফির। ধীরে ধীরে এই সিরিয়ালের বিষয়বস্তুতে এসেছে বিরাট পরিবর্তন। মাঝখানে পরকীয়ার মত বিষয়ও দেখানো হয়েছিল এই সিরিয়ালে।

কিন্তু পরবর্তীতে দর্শকদের চাহিদার কথা মেনে নিয়ে পরিবর্তন আনা হয়েছে সিরিয়ালের ট্রাকে। কিন্তু হলে কি হবে দিনে দিনে কমতে শুরু করেছে এই সিরিয়ালের টিআরপি। ধারাবাহিকের টিপু আর বরফির কেমিস্ট্রি খুব একটা ছাপ ফেলতে পারেনি দর্শকদের মনে। এরই মধ্যে শারীরিক অসুস্থতার (Ill) কারণে চিকিৎসার জন্য চেন্নাই চলে গিয়েছেন সহচরী অভিনেত্রী কনীনিকা।

সেই সাথে অভিনেত্রী জানিয়েছিলেন তিনি খুব মিস করবেন সিরিয়ালের সমস্ত কলা কুশলীদের। তবে ঠিক কতদিন পরে আবার ফের একবার সিরিয়ালের শুটিংয়ে তিনি ফিরবেন সে কথা এখনও পর্যন্ত জানানো মুশকিল। তবে অভিনেত্রী জানিয়েছেন চিকিৎসা শেষে একটু সুস্থ হয়েই তিনি আবার ফিরে আসবেন শুটিং ফ্লোরে।

Aay Tobe Sohochori Actress Konineenica Banerjee

এরই মধ্যে টেলিপাড়ায় জোর জল্পনা অসুস্থতার কারণে অভিনেত্রী এই সিরিয়াল ছেড়ে দেওয়ায় তার পরিবর্তে সহচরীর ভূমিকায় আসতে চলেছে নতুন মুখ (New Face)। শোনা যাচ্ছে ‘শ্রীময়ী’ (Sreemoyee) সিরিয়ালের কোনো জনপ্রিয় মুখ আসতে পারে খুব তাড়াতাড়ি। কিন্তু এ বিষয়ে এখনো পর্যন্ত চ্যানেল কর্তৃপক্ষের তরফে কোনরকম নিশ্চয়তা মেলেনি। তাই এমনটা আদৌ সত্যি হবে কিনা তা এখনই বলা মুশকিল।

Related Articles

Back to top button