বিনোদনসিরিয়াল

গাঁটছড়ার খড়িকে নকল করছে মিঠাই আর উর্মি! সোশ্যাল মিডিয়ায় দর্শকদের মধ্যে চলছে ভার্চুয়াল লড়াই

আজকের দিনে বিনোদন জগতের গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হয়ে উঠেছে সিরিয়াল। তাই প্রতিদিন বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যা হতেই চায়ের সাথে মুখরোচক তেলে ভাজার মতোই সিরিয়ালটাও রোজকার জীবনের একটা অঙ্গ হয়ে উঠেছে। আর বর্তমানে দর্শকদের কাছে সিরিয়াল মানে হয় জি বাংলা নয়তো স্টার জলসা। তাই প্রতি সপ্তাহের টিআরপির রেটিং পয়েন্ট নিয়ে এই দুই চ্যানেলের মধ্যে লক্ষ্য করা যায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই।

তবে সম্প্রতি টিআরপির লড়াইয়ে জি বাংলার তুলনায় বেশ খানিকটা এগিয়েই রয়েছে স্টার জলসার একাধিক সিরিয়াল। এই তালিকায় সবার প্রথমেই উঠে আসে স্টার জলসার নতুন মেগা সিরিয়াল গাঁটছড়ার নাম।ইতিমধ্যে শুরুতেই বাজিমাত করে জি বাংলার বেঙ্গল টপার মিঠাই সিরিয়ালের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে টি আরপি লিস্টের শীর্ষ স্থানে উঠে এসেছে এই গাঁটছড়া সিরিয়াল।

আর সোশ্যাল মিডিয়ায় পছন্দের সিরিয়ালের তারকাদের নিয়ে বরাবরই নেটিজেনদের মাতামাতির অন্ত নেই। প্রিয় তারকাদের পক্ষপাতীত্ব করার নামে রীতিমতো ভার্চুয়াল যুদ্ধে সামিল হতে দেখা যায় নেটিজেনদের। আর এখন তো স্টার জলসা আর জি বাংলা মানে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই। এ বলে আমায় দেখ তো ও বলে আমায় দেখ। দর্শকদের ভালোবাসা পেতে প্রতি সপ্তাহেই সিরিয়াল গুলোতে আনা হয় নিত্যনতুন চমক।

কিছুদিন আগেই স্টার জলসার গাঁটছড়া সিরিয়ালে চূড়ান্ত নাটকীয়ভাবে খড়ির সাথে বিয়ে হয়েছে সিংহরায় পরিবারের ছেলে ঋদ্ধির। শুরু থেকেই এই খড়ি চরিত্রের অভিনেত্রী সোলাঙ্কি রায়ের অভিনয় মন ছুঁয়েছে দর্শকদের। যার সাথে পাল্লা দিয়ে উঠতে পারছে জি বাংলার মিঠাই, ঊর্মিয়া মতো নায়িকারা। আর সম্প্রতি গাঁটছড়ার ভক্তরা সোশ্যাল মিডিয়ায় জি বাংলার বিরুদ্ধে একটা বড়সড় অভিযোগ এনেছেন। প্রসঙ্গত গাঁটছড়া সিরিয়ালে বিয়ের পর থেকেই খড়ি অভিনেত্রী কে মাথায় ফুল গুঁজতে দেখা যাচ্ছে। যা তার স্টাইল স্টেটমেন্টকে দিয়েছে এক অন্য মাত্রা দিচ্ছে।

অন্যদিকে সম্প্রতি জি বাংলার মিঠাই সিরিয়ালের নায়িকা মিঠাই এবং এই পথ যদি না শেষ হয় অভিনেত্রী উর্মিকে হোলি স্পেশাল এপিসোডে ওই একই কায়দায় ফুল লাগাতে দেখা গিয়েছিল। যা দেখে গাঁটছড়ার ভক্তদের দাবি খড়ির কাছ থেকে স্টাইল স্টেটমেন্ট ধার করেছে উর্মি, মিঠাই। যদিও এই দাবি যে একেবারেই খাটে না তা গাঁটছড়া সিরিয়াল শুরু হওয়ার অনেক আগে মিঠাই সিরিয়ালের ছবি দিয়ে প্রমাণ করে দিয়েছেন মিঠাই ভক্তরা।

Related Articles

Back to top button