বিনোদনভিডিও

একাধিক মেয়েকে যৌন হেনস্থা! TRP বাড়াতে সেই সাজিদ খান Bigg Boss 16র প্রতিযোগী, ক্ষুদ্ধ নেটিজেনরা

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে ১ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে ‘বিগ বস ১৬’এর (Bigg Boss 16) সম্প্রচার। টেলিভিশনের ইতিহাসের অন্যতম সুপারহিট শো এটি। চলতি সিজনও দর্শকদের পছন্দ হবে বলেই আশা করছেন নির্মাতারা। তবে ‘বিগ বস ১৬’ সফল হল কিনা তা পরে জানা গেলেও, শো শুরুর দিন থেকেই একজন প্রতিযোগীকে ঘিরে উত্তাল হয়ে পড়েছে নেটদুনিয়া।

সলমন খান সঞ্চালিত ‘বিগ বস’এর ১৬তম সিজনের একজন প্রতিযোগী হলেন বলিউডের নামী পরিচালক সাজিদ খান (Sajid Khan)। তাঁকে ঘিরেই হয়েছে বিতর্ক। আসলে সাজিদের বিরুদ্ধে বছর কয়েক আগে একাধিক অভিনেত্রী ‘মি টু’ মুভমেন্টের সময় শারীরিক হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন। এবার সেই ব্যক্তিকেই প্রতিযোগী হিসেবে আনায় চটে গিয়েছেন দর্শকদের একাংশ।

Sajid Khan

‘বিগ বস ১৬’এর মঞ্চে গিয়ে সাজিদ বলেন, ‘শেষ ৪ বছর ধরে আমি বাড়িতে বসে আছি। সেভাবে কাজ পাচ্ছি না। তাই যখন কালার্সের তরফ থেকে আমায় আমন্ত্রণ করা হয়, আমার মনে হয় এবার আমার যাওয়া উচিত। নিজের বিষয়েও কিছু জিনিস শেখা উচিত’।

সাজিদ জানান, তিনি নিজের জীবনে অনেক চড়াই উৎরাই’এর সম্মুখীন হয়েছেন। একসময় বলিউডের প্রায় প্রত্যেক প্রথম সারির অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ করে একাধিক হিট ছবি তৈরি করে তাঁর মধ্যে একটা অহংকার এসে গিয়েছিল। আর সেই অহংকারই তাঁর পতনের মূল বলে মত সাজিদের।

Sajid Khan

তবে সাজিদকে ‘বিগ বস ১৬’এর প্রতিযোগী হিসেবে দেখেই চটে গিয়েছেন নেটিজেনদের একাংশ। একজন যেমন লিখেছেন, ‘একজন যৌন হেনস্থাকারী এবং ‘মি টু’ অপরাধে দোষী সাজিদ খানকে ভারতীয় টেলিভিশনের একটি জনপ্রিয় শোয়ের মঞ্চে দেখে জঘন্য লাগছে। ‘বিগ বস’ এবং ভায়াকম ১৮’এর লজ্জা হওয়া উচিত। এমন ছবি তৈরি করতে চাইছেন আপনারা?’

আর একজন নেটাগরিক আবার লিখেছেন, ‘সাজিদ খানকে কেন দেখতে চাইব? তাও আবার রিয়্যালিটি টিভি শো বিগ বসে? ভগবানের জন্য অন্তত বুঝুন ওনাকে কোনও ভালো কারণের জন্য সাসপেন্ড করা হয়নি। একজন মিটু দোষী’।

Related Articles

Back to top button