বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

পর্দার মতোই বাস্তবেও শত্রু শ্বাশুড়ি-বৌমা? অফস্ক্রিন সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন দুই অভিনেত্রী

সিরিয়াল মানেই দর্শকদের কাছে বিনোদনের রসদ। প্রত্যেকদিন বিকেলে সেই কারণে টিভি খুলে বসে পড়েন তাঁরা। রোজ দেখতে দেখতে সিরিয়ালের চরিত্রগুলি হয়ে ওঠে দর্শকদের ঘরের সদস্য। ঠিক যেমনটা হয়েছে ‘নিম ফুলের মধু’র (Neem Phuler Modhu) ক্ষেত্রে। পর্ণা (Parna), বাবু, বাবুর মা (Babur Maa) যেন মাস খানেকের মধ্যেই হয়ে উঠেছে দর্শকদের পরিবারের অংশ।

জি বাংলায় সম্প্রচারিত ‘নিম ফুলের মধু’ শুরু হয়েছে বেশিদিন হয়নি। কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই দর্শকদের মনে স্থান করে নিয়েছে এই সিরিয়ালটি। পরকীয়া কিংবা আজগুবি গল্প নয়, বরং বিয়ের পর শাশুড়ি-বৌমার ঠাণ্ডা-গরম সম্পর্ক নিয়ে তৈরি হয়েছে এই সিরিয়াল।

Neem Phuler Modhu, Neem Phuler Modhu Parna Babur Maa

‘নিম ফুলের মধু’ এমন একটি ধারাবাহিক যেখানে শাশুড়ি-বৌমার সম্পর্ককে প্রচণ্ড বাস্তবভিত্তিকভাবে দেখানো হচ্ছে। বাস্তব জীবনে যেভাবে বিয়ের পর শাশুড়ি-বৌমার মধ্যে ছেলেকে নিয়ে দড়ি টানাটানি হয় তা দেখানো হচ্ছে এই সিরিয়ালে। এখনও পর্যন্ত পর্ণা এবং বাবুর মায়ের সম্পর্ক বেশ তেতোই। পর্ণা নানানভাবে শাশুড়ির মন জয় করার চেষ্টা করলেও তিনি গলতে রাজি নন।

পর্দায় পর্ণা এবং বাবুর মায়ের সম্পর্ক একেবারে আদায়-কাঁচকলায়। তবে পর্দায় বাইরেও অভিনেতা-অভিনেত্রীদের একটা জীবন থাকে। সেখানে কেমন সম্পর্ক পর্ণা এবং কৃষ্ণার? সম্প্রতি একটি নামী সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খুলেছিলেন পর্ণা অভিনেত্রী পল্লবী শর্মা (Pallabi Sharma) এবং বাবুর মা অর্থাৎ অরিজিতা মুখোপাধ্যায় (Arijita Mukhopadhyay)।

Pallavi Sharma Arijita Mukhopadhyay

‘নিম ফুলের মধু’ ধারাবাহিকে যতই তেতো সম্পর্ক দেখানো হোক না কেন, বাস্তবে পল্লবী এবং অরিজিতার সম্পর্ক কিন্তু বেশ মধুর। সম্পূর্ণ সাক্ষাৎকারে হাসিঠাট্টা করেছেন দু’জনে। অরিজিতা আবার জানান, বাস্তব জীবনে তাঁর সঙ্গে পর্ণা চরিত্রটির অনেক মিল রয়েছে। তবে তাঁর মধ্যে এত বেশি সহ্যক্ষমতা নেই। তাঁর যদি এমন পরিবারে বিয়ে হয় তাহলে সে সব ছেড়েছুড়ে বাপের বাড়ি ফিরে আসবেন!

অপরদিকে ‘নিম ফুলের মধু’ সম্পর্কে কথা বলার সময় পল্লবী আবার মজার ছলে বলেন, বাবুর মা যতই চেষ্টা করুক না কেন, শেষ পর্যন্ত বৌয়ের আঁচলেই বাঁধা পড়বে বাবু। যা শুনে অরিজিতা বলেন, প্রত্যেকদিন চিত্রনাট্য পড়তে পড়তে সেই কথা বেশ আঁচ করতে পারছেন তিনি।

Related Articles

Back to top button