গসিপবিনোদনসিনেমা

৫ বছরের সম্পর্ক ভেঙে ভুল করেছি, প্রাক্তন প্রেমিক উদয় চোপড়াকে নিয়ে আফসোস নার্গিসের

বি টাউনে সম্পর্কের ভাঙা গড়া নতুন ঘটনা নয়। জমকালো এই গ্লামার ওয়ার্ল্ডে সম্পর্ক আজ আছে তো কাল নেই। তবে সম্পর্ক ভেঙে গেলে বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই প্রাক্তন দের বিষোদগার করতে দেখা যায় সেলেবদের। এর উদাহরণ আছে ভুরি ভুরি। কিন্তু সম্প্রতি স্রোতের বিপরীতে হাঁটতে দেখা গেল রকস্টার অভিনেত্রী নার্গিস ফাকরিকে (Nargis Fakhri)।

একটা সময় বলিউডের অন্দরে কান পাতলেই শোনা যেত যশ চোপড়ার ছোটো ছেলে উদয় চোপড়ার (Uday Chopra) সাথে তাঁর সম্পর্কের কথা। কিন্তু সম্পর্কে থাকাকালীন সেকথা কখনই সংবাদমাধ্যমে স্বীকার করেননি উদয়-নারগিস দুজনেই। আর পুরনো দিনের সেই মধুর সম্পর্কের কথা ভেবেই এখন রীতিমতো আফসোস করছেন এই বলি সুন্দরী। তবে এই আফসোসের কারণটা একটু আলাদা।

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে সংবাদমাধ্যমের কাছে উদয় চোপড়ার সাথে সম্পর্কে থাকার কথা স্বীকার করে নিয়েই নারগিস বলেছেন ‘গত পাঁচ বছর ধরে আমরা ডেট করেছি,এবং ভারতে আমার দেখা সবচেয়ে সুন্দর মানুষ হলেন উদয়। তবে আমি কোনওদিনই সংবাদ-মাধ্যমের কাছে আমার আর উদয়ের সম্পর্কের কথা বলিনি, কারণ আমাকে কিছু লোকজন এবিষয়ে কথা বলতে নিষেধ করেছিলেন। এখন আফসোস হয়, পাহাড়ের চূড়া থেকে চিৎকার করে এই সম্পর্কের কথা বলা উচিত ছিল আমার।’

সেইসাথে নার্গিস এদিন সোশ্যাল মিডিয়ার প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘এখন সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে বেশিরভাগ খবরই ভুয়ো, অনেকে সময় আমরা এমন কিছু মানুষকে দেবতার আসনে বসিয়ে দিই বাস্তব জীবনে যাদের আসল রূপ অত্যন্ত ভয়ঙ্কর হয়’। তবে নার্গিস জানিয়েছেন উদয়ের সাথে তিনি এখন আর সম্পর্কে নেই। তবে উদয় তাঁর জীবনের অংশ হয়ে থাকবেন।

তাঁর কথায় ভারতে খুব কম মানুষ তাঁর বন্ধু হয়েছিলেন, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন উদয় চোপড়া। জানা যায় ব্রেকআপের পর মনোঃকষ্টে দেশ ছেড়ে নিউ ইর্য়ক চলে গিয়েছন অভিনেত্রী। পরে অবশ্য তাঁর টীমের তরফে জানানো হয় শারীরিক অসুস্থার কারণেই আমেরিকায় রয়েছেন তিনি। তবে এদিন নার্গিস উদয় চোপড়ার সঙ্গে সম্পর্কের কথা স্বীকার করে নিলেও ঠিক কী কারণে তাঁদের সম্পর্ক ভেঙেছিল তা স্পষ্ট করেননি।

Related Articles

Back to top button