খবরভাইরাল

বিদেশে ৫৯২ কোটির বাড়ি কিনেছেন মুকেশ আম্বানি, সপরিবারে ছাড়বেন ভারত! প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য

ভারতের সবচাইতে ধনী ব্যক্তিদের তালিকা তৈরী হলে প্রথমে যে নাম আসবে সেটা মুকেশ আম্বানি (Mukesh Ambani)। কয়েক হাজার কোটির সম্পত্তি রয়েছে  মুকেশ আম্বানির। যে কারণে মাঝে মধ্যেই সংবাদ মাধ্যমে উঠে আসে নাম। তবে সম্প্রতি মুকেশ অম্বানিকে নিয়ে চর্চা আবারো তুঙ্গে উঠেছে। এবার নাকি ছেলে বউ সহ সপরিবারে ভারত ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন আম্বানিরা। মুম্বাইয়ের বাড়ি ছেড়ে বিদেশে পারি দিতে চলেছেন এমনটাই খবর চারিদিকে।

বর্তমানে মুকেশ আম্বানির বাসস্থান মুম্বাইয়ের ‘অ্যান্টিলিয়া (Antilia)’। প্রায় ১২০০০ কোটি মূল্যের মুম্বাইয়ের বাসস্থান ছেড়ে এবার নাকি বিদেশে পাড়ি দিতে চলেছেন তিনি। যেমনটা জানা যাচ্ছে লন্ডনে (London) চলে যেতে পারেন আম্বানি। সোশ্যাল মিডিয়াতে এমনি খবর ছড়িয়ে পড়েছে। অবশ্য এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পিছনে কিছু কারণ রয়েছে। গতবছরের শুরুতে লন্ডনের ব্রিটেনে ৫৯২ কোটি টাকা খরচ করে একটি সম্পত্তি কিনেছেন মুকেশ আম্বানি।

ব্রিটেনের ৩০০ একরের স্টোক পার্ক (Stoke Park Britain) বর্তমানে ভারতীয় ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানির নামে রয়েছে। এবার সেখানেই নাকি নিজের দ্বিতীয় বাসস্থান করতে চলেছেন ধনকুবের আম্বানি। বিশাল এই সম্পত্তিতে একটি আস্ত প্রাসাদ রয়েছে। যাতে ৪৯টি  বেডরুম রয়েছে। এছাড়াও বাড়ির মধ্যেই হাসপাতাল থেকে শুরু করে সমস্ত রকমের সুযোগ সুবিধার রয়েছে।

গতবছর গোটা দেশে যখন লকডাউন চলছিল তখন মুম্বাইয়ের ৪ লক্ষ স্কোয়ার ফুটের বাড়িতেই ছিলেন আম্বানি। তবে এবার বাসস্থান বদল করে চেয়েই ব্রিটেনের বাড়ি কিনেছেন তিনি। সেই কারণেই আম্বানি পরিবারের বিদেশে থাকার খবর ছড়িয়ে পড়েছে সর্বত্র। তবে আদতে কি সত্যি সত্যিই ভারত ছেড়ে পরিবার সহ বিদেশে চলে যাচ্ছেন অম্বানিরা? এর উত্তর হল না।

ভারতবর্ষ ছেড়ে কোথাও যাচ্ছেন না তাদের কেউই। খবরটি সম্পূর্ণ ভুল খবর বলেই জানা যাচ্ছে। তাহলে কোটি কোটি টাকা খরচ করে প্রাসাদতুল্য বাড়ি কেন কিনলেন আম্বানি? এর উত্তরে জানা গেছে, লকডাউনের সময় গোটা আম্বানি পরিবার ‘অ্যান্টিলিয়া’তেই ছিল। তাই তাদের মতে আরো একটা ভালো বাসস্থান প্রয়োজন খানিকটা অবসর সময়ে ঘুরতে যাওয়া ও সময় কাটানোর জন্য। সেই কারণেই লন্ডনের বিলাস বহুল এই প্রাসাদ কিনেছেন আম্বানি। সেখানে পাকাপাকিভাবে বসবাস করার কোনো ইচ্ছাই আপাতত নেই।

Related Articles

Back to top button