ছবিবিনোদন

জলের মতো টাকা ঢেলেও ভরাডুবি! ছুড়ে ফেলেছে দর্শকেরা, রইল বলিউডের ঐতিহাসিক ৫ ফ্লপ ছবির তালিকা

একটি ছবি তৈরির পিছনে কলাকুশলীদের পরিশ্রম যেমন লাগে, তেমনই লাগে ভালো বাজেট। নাহলে কোথাও একটা গিয়ে ছবির মান পড়ে যায়। বর্তমান সময়ে তো আবার ৫০ কোটির বাজেটও কম মনে হয় অনেক চলচ্চিত্র নির্মাতার। তবে বড় মাপের মাল্টি স্টারার ছবি বানানোর সময় সেই অঙ্কটা কয়েকশো কোটি ছাড়িয়ে যায়। তবে বলিউডের (Bollywood) ইতিহাসে এমন অনেক ছবি রয়েছে, যেগুলি তৈরিতে প্রচুর টাকা খরচ (Expensive) করেছিলেন নির্মাতারা। কিন্তু সেই ছবিগুলি বক্স অফিসে একেবারে মুখ থুবড়ে (Flop) পড়েছিল।

সম্রাট পৃথ্বীরাজ (Samrat Prithviraj)- ২০২২ সালের অন্যতম ফ্লপ ছবির তালিকায় তো বটেই, বলিউডের ইতিহাসের সবচেয়ে দামি ফ্লপ ছবির তালিকাতেও নিজের স্থান করে নিয়েছে এই ছবি। অক্ষয় কুমার অভিনীত এই ছবিতে সম্রাট পৃথ্বীরাজ চৌহানের কাহিনী দেখানো হয়েছিল। ছবির বাজেট ছিল ৩০০ কোটি। কিন্তু বক্স অফিসে মাত্র ৯০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল ছবিটি।

Samrat Prithviraaj

থাগস অফ হিন্দোস্তান (Thugs of Hindostan)- ২০১৮ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন বলিউডের দুই সুপারস্টার অমিতাভ বচ্চন এবং আমির খান। সঙ্গে ছিলেন ক্যাটরিনা কাইফও। মুক্তি পাওয়ার পর বক্স অফিসে ভালো শুরু করেছিল ছবিটি। কিন্তু ধীরে ধীরে ছবিটির আয়ের অঙ্ক কমতে থাকে। শেষ পর্যন্ত ৩০০ কোটির বাজেটে তৈরি এই ছবি মাত্র ১৫০ কোটি টাকা ঘরে তুলতে পেরেছিল।

Thugs of hindostan

ধাকড় (Dhaakad)- কঙ্গনা রানাউত অভিনীত এই ছবিটি চলতি বছর মুক্তি পেয়েছিল। ‘ধাকড়’ একটি অ্যাকশন ফিল্ম। কিন্তু বক্স অফিসে কোনও অ্যাকশন করতে পারেনি ছবিটি। ৮৫ কোটি টাকার বাজেটে তৈরি এই ছবি মাত্র ২.৫৮ কোটি টাকার ব্যবসা করতে পেরেছিল।

Dhaakad

রেস ৩ (Race 3)- মাল্টি স্টারার এই ছবিটি ২০১৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল। আর তারপর থেকেই দর্শকদের চরম কটাক্ষের শিকার হয়েছিল ছবিটি। বক্স অফিসেও খুব একটা ভালো ব্যবসা করতে পারেনি সলমন খান অভিনীত এই ছবি। ১৮০ কোটির বাজেটে তৈরি এই ছবি ১৬৫ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল।

Race 3

কাইটস (Kites)- ঋত্বিক রোশন অভিনীত এই ছবিতে কেকে এবং বিশাল দাদলানির গাওয়া বেশ কিছু গান এখনও দর্শকদের মনে রয়েছে। তবে ছবির গান দর্শকমনে দাগ কাটতে পারলেও, ছবিটি কিন্তু বক্স অফিসে দাগ কাটতে পারেনি। ৮২ কোটির বাজেটে তৈরি এই ছবি মাত্র ৪৮.৩৩ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল।

Kites movie

বম্বে ভেলভেট (Bombay Velvet)- বলিউডের নামী পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ পরিচালিত এই ছবিতে অভিনয় করেছিলেন রণবীর কাপুর এবং অনুষ্কা শর্মা। ছবিটি তৈরিতে খরচ হয়েছিল ১২০ কোটি টাকা। কিন্তু বক্স অফিসে ঝড় তুলতে ব্যর্থ হয় ছবিটি। মাত্র ৪৩.১ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল ‘বম্বে ভেলভেট’।

Bombay Velvet

কলঙ্ক (Kalank)- ২০১৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত এই ছবি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ ছিল তুঙ্গে। কারণ এই সিনেমায় একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন সঞ্জয় দত্ত, মাধুরী দীক্ষিত, বরুণ ধাওয়ান, আলিয়া ভাট, আদিত্য রায় কাপুর এবং সোনাক্ষী সিনহা। কিন্তু বক্স অফিসে চরম ব্যর্থ হয়েছিল ছবিটি। ১৮০ কোটি টাকার বাজেটে তৈরি এই ছবি মাত্র ৬৬.০৩ কোটি টাকার ব্যবসা করতে সক্ষম হয়েছিল।

Kalank

সাঁওয়ারিয়া (Saawariya)- এই ছবির মাধ্যমেই বলিউডে পা রেখেছিলেন দুই তারকা সন্তান, রণবীর কাপুর এবং সোনম কাপুর। ছবিটির পরিচালনা করেছিলেন সঞ্জয় লীলা বনশালি। তবে বক্স অফিসে ভালো ব্যবসা করতে পারেনি ছবিটি। ৪০ কোটির বাজেটে তৈরি এই ছবি মাত্র ১৮.৪৮ কোটি টাকা আয় করেছিল।

Saawariya movie

শানদার (Shaandaar)- ২০১৫ সালের ফ্লপ ছবির তালিকায় ওপরের দিকেই থাকবে পঙ্কজ কাপুর, শাহিদ কাপুর এবং আলিয়া ভাট অভিনীত এই ছবি। ছবিটি নিয়ে দর্শকদের আগ্রহ থাকলেও, তাঁদের ইমপ্রেস করতে ব্যর্থ হয়েছিল ‘শানদার’।

Shaandaar movie

৬৯ কোটির বাজেটে তৈরি এই ছবি বক্স অফিসে একেবারেই শানদার পারফর্ম করতে পারেনি। মাত্র ৩৯.৪৮ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল ছবিটি।

Related Articles

Back to top button