খবরছবিবিনোদনভাইরাল

বছরের সর্বোচ্চ কাঙ্খিত পুরুষ! না থেকেও মানুষের মনে গেঁথে গিয়েছেন সুশান্ত সিং রাজপুত

সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput) নামটা আজও ভুলতে পারেননি কেউই। তার অকস্মাত মৃত্যুটা মেনে নিতে পারেননি তার শুভাকাঙ্খীরা। মেনে নিতে পারেননি তার অনুরাগীরা। গত বছর ২০২০ সালের ১৪ ই জুন সকল অনুরাগীকে, পরিবারকে, আত্মীয়-পরিজন কে চোখের জলে ভাসিয়ে না ফেরার দেশে পারি দিয়েছেন তিনি। তার মৃত্যুর তদন্তে মৃত্যুটা আত্মহত্যা বলা হলেও এই কেসের তদন্তে অনেক কেই জেরার মুখে পড়তে হয়েছিল, অনেক তথ্য পাওয়া গিয়েছিলো। ইহজগতের সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে পরলোকে গমন করেছেন সুশান্ত। প্রতিটি অনুরাগীর স্মৃতিতে তিনি জীবিত আছেন।

সম্প্রতি অনুরাগীদের এই বুক ভরা ভালোবাসায় সুশান্ত তকমা পেয়েছেন বছরের সেরা কাঙ্খিত পুরুষের। ২০২০ সালের সেরা কাঙ্খিত পুরুষের (Most Desirable Man) স্থানে আজ জায়গা পেয়েছেন সেই কাঙ্খিত অভিনেতা যিনি আজ পৃথিবীর কোথাও অবস্থান করেন না। হাজার চাইলেও সেই কাঙ্খিত পুরুষকে খুঁজে পাওয়া অসম্ভব।

Sushant Singh Rajput

একজন কে মানুষ কতটা ভালোবাসা দিলে আজ সে এই জায়গায় থাকতে পারে? কাঙ্খিত শব্দের মানে এক এক জনের কাছে এক এক রকম। সুশান্তের আজ এই প্রাপ্তি তার অসংখ অনুরাগীর বুক ভরা ভালোবাসা। কিন্তু এই ভালোবাসা উপভোগ করার জন্য সেই চিরতরে বিলীন হয়ে যাওয়া কাঙ্খিত পুরুষটি আর ফায়ার আসবেন না কখনো তিনি সর্বদা ভক্তদের মনেই থেকে যাবেন।

‘ক্যালকাটা টাইমস (Calcutta Time)’ সংবাদ পত্রের সোশ্যাল ওয়ালে আজ এই খবর প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই নানারূপ মন্তব্য এই পোস্ট এর পক্ষে ও বিপক্ষে দেখা যাচ্ছে। কেউ কেউ ক্ষুব্ধ হয়ে বলেছেন মৃত্যুর পর এতো সম্মানের কোনো মানে হয় না। আবার কারোর মতে সংবাদ মাধ্যমে নাম না আসলেও সুশান্ত কাঙ্খিত পুরুষ সকলের কাছেই। এমনকি এবছরেও ছবিটা পাল্টাবেনা বলেন মত অনেকের।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Calcutta Times (@calcuttatimes)

প্রসঙ্গত, গতবছর এই মাসের ১৪ তারিখেই সকলকে ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন সুশান্ত। সেই থেকে নানা তদন্ত ও নানা তথ্যের উদ্ঘাটন হলেও এখনো পর্যন্ত কোনো সঠিক সুরাহা হয়নি। সম্প্রতি সুশান্ত মামলার তদন্তে পুলিশ গ্রেফতার করেছে সুশান্তের ফ্লাটমেট সিদ্ধার্থ পিটানিকে। যেদিন রাতে সুশান্তের মৃত্যু হয় সেদিন ফ্ল্যাটে ছিলেন সিদ্ধার্থ এমনকি সুশান্তকে দেখেও ছিলেন। তবে বর্তমানে তদন্ত ঠিক কোন পর্যায়ে সে বিষয়ে কোনো খবর মেলেনি পুলিশের তরফ থেকে।

Related Articles

Back to top button