বিনোদনভাইরালভিডিওসিনেমা

পুজোর আগেই জোরকদমে চলছে প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণার বিয়ের প্রস্তুতি! রইল ভাইরাল ভিডিও

একটা সময় ছিল যখন বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম পর্দা কাঁপানো জুটির কথা উঠলে প্রথমেই আসতো প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee) এবং ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত (Rituparna Sengupta)-এর নাম। তখন সিনেমাহলে এই জুটির সিনেমা মুক্তি পাওয়া মানেই তা ছিল সুপারহিট। এখন সময়ের সাথে সাথে দুজনের একসাথে কাজের সংখ্যা কমে গেলেও দর্শকমহলে আজও অব্যাহত এই জুটির ম্যাজিক।

প্রসঙ্গত বাংলা সিনেমার এই জনপ্রিয় জুটি একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন প্রায় ৫০টি ছবিতে। পরবর্তীতে মনোমালিন্যের জেরে দীর্ঘদিন কাজ করেননি একসাথে। তবে ১৫ বছর পর ২০১৬ সালে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ও নন্দিতা রায়ের ‘প্রাক্তন’ ছবিতে কামব্যাক করেন তারা।যা মুক্তির পর রীতিমতো সাড়া ফেলে দিয়েছিল। এরপর শেষবার তাদের একসাথে দেখা যায় ২০১৮ সালে দৃষ্টিকোণ সিনেমায়।

এতো কিছুর পর এবার শোনা যাচ্ছে এই বয়সে এসে বিয়ে করতে চলেছেন প্রসেনজিৎ ঋতুপর্ণা। আজ জাতীয় সিনেমা দিবসের দিন সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও আপলোড করেছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। সেখানে দেখা যাচ্ছে তিনি চিৎকার করে ঋতুপর্ণাকে ডাকছেন এবং বলছেন বিয়ের ডেট ঠিক করতে হবে।  কিন্তু ছেলে বড় হয়ে গিয়েছে মেয়ে বড় হয়ে গিয়েছে এখন বিয়ে! তাই প্রথমে প্রসেনজিৎ কি বলছেন তার কথা কিছুই বুঝতে পারছিলেন না ঋতুপর্ণা।


পরেই অবশ্য জল্পনা জিইয়ে রেখে প্রসেনজিতের সংযোজন ‘আমাদের বিয়ের কথা থোড়াই বলছি… ওই যে ভিতরে…’। ব্যাস এরপর এই ভিডিও আটকে যেতে দেখা যায়। যা সম্পূর্ণটাই আসলে করা হয়েছে প্রচারের জন্য। এইভাবে অসম্পূর্ণ ভিডিও আপলোড করায় ইতিমধ্যেই দর্শকদের মধ্যে তৈরি হয়েছে ব্যাপক কৌতূহল। ভিডিওর ক্যাপশনে অভিনেতা লিখেছেন ‘বিয়ের তারিখটা তো ঠিক করতে হবে নাকি! কি আপনারাও জানতে চান তো?’ আসলে পরিচালক সম্রাট শর্মার আগামী ছবির নাম প্রসেনজিৎ ওয়েডস  ঋতুপর্ণা।এই ছবিতে ক্যামিও চরিত্রে দেখা যাবে এই প্রাক্তন জুটিকে। তাছাড়া থাকবে বেশ কিছু নতুন মুখ. তবে এখনও পর্যন্ত বিস্তারিত কোনো তথ্যই মেলেনি।

প্রসঙ্গত চলতি বছরের ভ্যালেন্টাইন্স ডেতেই ভক্তদের এক বড়সড় সুখবর দিয়েছিলেন এই ‘প্রাক্তন’ জুটি। সবাইকে চমকে দিয়ে নিজেদের বিয়ের ডিজিটাল কার্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে সবাইকে সপরিবারে আমন্ত্রণ জানালেন এই জনপ্রিয় জুটি। যার শুরুতেই জ্বলজ্বল করছে ‘প্রসেনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা’। এরপর স্ক্রিনে ফুটে ওঠে ‘সবিনয় নিবেদন, মহাশয়/ মহাশয়া, বিগত ৩ দশকেরও বেশি সময় ধরে একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করার পরে আমরা নতুনভাবে আপনাদের সামনে আসতে চলেছি। প্রসনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা।’

সেইসাথে লেখা হয়েছিল ‘গুরুজনদের আশীর্বাদ আর সবার ভালোবাসা নিয়ে আগামীদিনে পথ চলতে চাই। পাকা দেখা থেকে বিয়ের সব দায়িত্ব সামলাচ্ছেন সম্রাট শর্মা ও তাঁর টিম হাট্টিমাটিম। বিয়ের ঘটকালির দায়িত্বে পল্লবী চট্টোপাধ্যায়। তত্ত্বাবধানে মোহর ও শর্মিষ্ঠা। ডিজিটাল নিমন্ত্রণ পত্রের দ্বারা ত্রুটি মার্জনীয়। বিনীত, বিনীতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। বিয়ে সম্পর্কিত যে কোনও রকম তথ্যের জন্য কোনওরকম লজ্জা না পেয়ে ফোন করুন মোহর ও শর্মিষ্ঠাকে।’

Related Articles

Back to top button