বিনোদন

হঠাৎ সোশ্যাল মিডিয়া থেকে সরে গেলেন মনামী ঘোষ! তার ‘আত্মগোপনে’ জল্পনা শুরু নেটপাড়ায়

প্রথমে ধারাবাহিক, তারপর রুপোলি পর্দার দিকে ঝুঁকলেও বাংলা মেগা-ধারাবাহিকের জগতেই অধিক পরিচিত মনামী ঘোষ (Monami Ghosh)। সোশ্যাল মিডিয়ায় (Social Media) অভিনেত্রীর আনাগোনা বেশ সক্রিয়, স্বভাবতই মনামীর সম্পর্কে বেশ অবহিত তাঁর ফ্যানমহল। যদিও গত কয়েকদিনে অভিনেত্রীর পোস্ট নজরে না আসায় উদ্বিগ্ন নেটিজেনদের বার্তা জমতে থাকে মনামীর ইনবক্সে। অবশেষে শনিবার রাতে নেটিজেনদের উদ্দেশে বার্তা পাঠান টলি-অভিনেত্রী (Tollywood)।

গত ২দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি মনামীর মা। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত মনামীর মা। শনিবার রাতে ভক্তদের এ বিষয়ে জানান অভিনেত্রী। মা হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফেরার পরেই ফেসবুকে তাঁর লড়াইয়ের কাহিনি জানান মনামী। “ফেসবুকে কোনোদিন কোনো খারাপ খবর শেয়ার করিনি, তাই আজও ভালো খবরটি শেয়ার করছি”, শনিবার ফেসবুকের দেওয়ালে লেখেন মনামী।

Monami Ghosh

সোশ্যাল মঞ্চে মনামী লেখেন, “২২ দিনের একটা লড়াই কিছুটা জিতে বাড়ি এলাম মা-কে নিয়ে। মা লড়ল বেডে শুয়ে আর আমি কখনও আইসিইউ বেডের সামনে, কখনও হাসপাতালের বাইরে ,আবার কখনও বাড়িতে রাত জেগে। কয়েকজনকে ছাড়া এই লড়াইটা লড়তেই পারতাম না। একদম সঠিক সময়ে শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের ফোনটা না এলে হয়তো লড়াই শুরুই করতে পারতাম না।”

পাশাপাশি মনামী আরও জানান, “সৈকত ভাদুড়ি, তুমি যা যা করেছো এই ক’দিনে, মায়ের একটা ছেলে থাকলে ঠিক এটাই করত। অনিন্দিতা সেনগুপ্ত, তুমি আমার কাছে দেবদূত ছিলে আর থাকবে। ডঃ প্রতীম সেনগুপ্তকে ধন্যবাদ দেওয়ার ভাষা আমার নেই। আমার মায়ের খেয়াল রাখার জন্য বেলভিউ ক্লিনিকের প্রত্যেক কর্মীকে ধন্যবাদ।” স্বভাবতই মনামীর আবেগঘন পোস্টে চোখ ভিজেছে নেটিজেনদের।

Related Articles

Back to top button