খবরবিনোদন

মমতা প্রচণ্ড শক্তিশালী অভিনেত্রী: মিঠুন চক্রবর্তী, মমতা-প্রসঙ্গে প্রথমবার মুখ খুললেন অভিনেতা

বাংলার পাশাপাশি হিন্দি সিনে দুনিয়ার অন্যতম উজ্জ্বল জ্যোতিষ্ক হলেন মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty)। সব ধরণের চরিত্রে সাবলীলভাবে অভিনয় করতে পারেন তিনি। কয়েকমাস আগে যেমন ওয়েব সিরিজ ‘বেস্টসেলার’এ দুর্দান্ত অভিনয় করে নজর কেড়েছিলেন সকলের প্রিয় মিঠুন দা। তবে এবার দীর্ঘ চার বছর পর অতনু রায়চৌধুরীর ছবি ‘প্রজাপতি’র মাধ্যমে টলিউডে (Tollywood) প্রত্যাবর্তন করতে চলেছেন তিনি।

মিঠুনের পাশাপাশি এই ছবিতে টলিউডের সুপারস্টার দেব, মমতা শঙ্করের মতো শিল্পীদের দেখা যাবে। নিজের কেরিয়ারে ৩৭০’এর বেশি ছবিতে অভিনয় করার পর এখন কাহিনী এবং ভালো চিত্রনাট্যের ওপর জোর দিচ্ছেন ‘ডিস্কো ড্যান্সার’। এই দুই পছন্দ হলেই সই করছেন।

Mithun Chakraborty

দীর্ঘ চার বছর পর টলিউডে প্রত্যাবর্তন করছেন মিঠুন। এই সময়ে কতটা বদলেছে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি? মিঠুনের মতে, তাঁর কাছে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি একই রয়ে গিয়েছে। তবে ধীরে ধীরে বদলে যাচ্ছে বাংলা সিনেমার গল্প।

মিঠুনের আসন্ন ছবি ‘প্রজাপতি’তে তাঁর ছেলের ভূমিকায় দেখা যাবে দেবকে। ছবির কাহিনী প্রসঙ্গে বর্ষীয়ান অভিনেতা বলেন, বাবা-ছেলের সম্পর্কের গল্প হন ‘প্রজাপতি’। সেই সঙ্গেই দেখানো হবে দেবের প্রেমকাহিনীও। ছবিতে দেবের চরিত্র একটু দুষ্টু প্রকৃতির। অপরদিকে মিঠুন নিজেকে কঠিন এক বর্মে মুড়ে রাখেন। তবে ভেতর থেকে খুব নরম তিনি। ছেলের কষ্টে দুঃখ হলেও, ছেলেকে সেটা বুঝতে দেন না তিনি। এরপর একসময় দেবের জীবনে প্রেম আসে। বাকিটা সাসপেন্স। এরপর কী হবে তা জানার জন্য ছবি মুক্তির জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

Mithun Chakraborty and Dev

অভিজিৎ সেন পরিচালিত এই ছবির মাধ্যমে দীর্ঘ সাড়ে চার দশকেরও বেশি সময় পর বড় পর্দায় প্রত্যাবর্তন হচ্ছে ‘মৃগয়া’ খ্যাত মিঠুন এবং মমতা শঙ্করের জুটির। অভিনেত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক প্রসঙ্গে মিঠুন বলেন, মমতা তাঁর ভীষণ ভালো বন্ধু। পাশাপাশি তাঁর মত, তিনি প্রচণ্ড শক্তিশালী অভিনেত্রীও।

Mithun Chakraborty and Mamata Shankar

মিঠুনের মতে, টলিউড যদি তারকার জন্ম দিতে চায়, তাহলে বড় মাপের ছবি বানাতে হবে। প্রতিযোগিতায় নামলে প্রতিযোগীকে চিনতে হবে। আর যদি বাংলা ইন্ডাস্ট্রি নিজেদের মধ্যে প্রতিযোগিতা করে, তাহলে আর এগোতে পারবে না। এখানেই  আটকে থাকবে। দক্ষিণের ইন্ডাস্ট্রিকে টেক্কা দিতে পারবে না। একইরকমভাবে বলিউডকেও কিন্তু হলিউডের মতো ছবি বানাতে হবে। তবে এসবের মাঝেও অভিনেতার মতে, নিজের মতো করে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে টলিউড। সবশেষে মিঠুন এও জানান, পরিচালনায় আসার ইচ্ছা তাঁর। এবার দেখা যাক, বর্ষীয়ান এই অভিনেতাকে পরিচালকের আসনে কবে দেখা যায়।

Related Articles

Back to top button