গসিপবিনোদনসিনেমা

সুপারস্টার হলেও দূরে সরিয়ে দিয়েছিল সকলে! জীবনের একাকিত্বের দুঃখ ভাগ করলেন মিঠুন চক্রবর্তী

মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty) নামটা আজকের দিনে বাচ্চা থেকে বুড়ো সকলেই চেনে। কিন্তু তাঁর আসল নাম থেকে শুরুর জীবন সম্পর্কে অনেকেই আজও অজানা। শুরু থেকেই এতটা সফল ও জনপ্রিয় ছিলেন না অভিনেতা। মিঠুন চক্রবর্তীর আসল নাম গৌরাঙ্গ চক্রবর্তী। কলকাতার ছেলে গৌরাঙ্গ একদিন মুম্বাইয়ের বলিউড ইন্ডাস্ট্রি মাতিয়ে দিয়েছিল ডিস্কো ডান্সার গানে। প্রায় রাতারাতি বদলে গিয়েছিল জীবন।

ইন্ডাস্ট্রিতে এমন রাতারাতি সফল হওয়ার সুযোগ খুব কম জনেরই থাকে। মিঠুন চক্রবর্তী ছিলেন তাদের মধ্যে একজন। কিন্তু ব্যাপক  জনপ্রিয়তা থেকে অনেক টাকা ও খ্যাতি পেলেও একাকিত্বে কেটেছে অভিনেতার জীবন। যেটা মিঠুন চক্রবর্তী কখনোই চাননি। নিজের জীবনের এই একাকিত্বের দুঃখ সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে শেয়ার করে নিয়েছেন বাংলার ডিস্কো ডান্সার মিঠুন চক্রবর্তী।

মিঠুন জানান, আমি কখনো ভাবি নি যে আমি তারকা হব, সুপারস্টার তো দূর! কিন্তু যখন দেশের নাম্বার ওয়ান তারকা হয়ে উঠলাম তখন বুঝলাম বড় একাকিত্বে ভরা এই জায়গা। নাম যশ প্রতিপত্তি হয়তো ছিল কিন্তু একেবারেই একা হয়ে গিয়েছিলাম। খুবই এক! বাকিরা সবাই ভাবতো আমি হয়তো তাদের ধরা ছোঁয়ার অনেক বাইরে চলে গিয়েছি।

তিনি আরও বলেন, ‘সবাই বলতো, দাদার থেকে দূরে থেকো। ও এখন অনেক বড় হয়ে গিয়েছে’। এমনকি আমার বন্ধুরা পর্যন্ত আমাকে ভয় পেত। যেটা খুবই অদ্ভুত একটা বিষয় ছিল আমার কাছে। সকালে ঘুম থেকে উঠে তৈরী হয়ে শুটিংয়ের জন্য যেতাম আর ফিরে এলেই এক। এটাই ছিল সুপারস্টার হওয়ার পর আমার জীবন। সেও সময় দেশের হটেস্ট সুপারস্টার হয়েও আমি ছিলাম বড্ড একা।

Mithun Chakraborty Opens up about financial struggle in corona

তাঁর মতে, প্রতিনিয়ত কতশত মানুষেরা মুম্বাই ছুতে চলেছে নিজেদের স্বপ্নপূরণের লক্ষে। স্বপ্ন খ্যাতির চূড়ায় ওঠার, কিন্তু অনেক সময়েই দেখে লক্ষ্যপূরণের কিছুটা আগেই ছিটকে যান তাঁরা। তাদের জন্য অভিনেতা পরামর্শ দেন, শুধুমাত্র ভালো অভিনেতা বা অভিনেত্রী হলেই হবে না। ভালো অভিনয়ের পাশাপাশি একজন ভালো মানুষও হতেই হবে। তবেই স্টারডম ধরে রাখা সম্ভব না হলে নয়।

Related Articles

Back to top button