গসিপবিনোদন

১ মেয়ে এবং তিন পুত্র থাকতেও, এই কারনে সন্তানদের কাছ থেকে কখনো বাবা ডাক শোনেননি মিঠুন

হিন্দি সিনেমার বর্ষীয়ান অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীকে (Mithun Chakraborty) কে না চেনেন। মিঠুন চক্রবর্তী তার ক্যারিয়ারে অনেক সুপারহিট ছবিতে অভিনয় করেছেন এবং আজও মানুষ তার নাচ এবং অভিনয়ের ভক্ত। মিঠুনকে দীর্ঘদিন বড় পর্দায় দেখা না গেলেও  আজও তার ফ্যান ফলোয়িং এর কমতি নেই। মিঠুন চক্রবর্তী তার সুন্দর আচরণের জন্যও পরিচিত। বেশিরভাগ ভক্ত তথা গোটা বলিউড ইন্ডাস্ট্রি তাকে ‘মিঠুন দা ‘ বলেই ডাকেন।

ছবিতে কাজ করার সময় অভিনেত্রী শ্রীদেবীর সঙ্গে মিঠুনের সম্পর্ক শিরোনামে ছিল। যদিও নিজেদের সম্পর্কের বিষয়ে কখনোই প্রকাশ্যে মুখ খোলেননি দুজন। এমনও সোনা যায় কাউকে না জানিয়েই তারা বিয়ে করেছিলেন , এবং তিন বছর দাম্পত্য জীবন উপভোগও করেছিলেন। কিন্তু এই ঘটনার সত্যতা কতটুকু তা কেউ জানে না, এরপর বিখ্যাত অভিনেত্রী যোগিতা বালিকে বিয়ে করেন মিঠুন। বলিউডের ‘ডিস্কো ডান্সার’ চার সন্তানের বাবা হলেও তার সন্তানদের কেউ তাকে বাবা বলে ডাকে না। এমনটাই জানিয়েছেন মিঠুন চক্রবর্তী নিজেই।

আসলে, ২০১৯ সালে মিঠুন চক্রবর্তী যখন টেলিভিশনের সবচেয়ে জনপ্রিয় ডান্স রিয়েলিটি শো, ‘সুপার ডান্স চ্যাপ্টার-3’-এ অতিথি হিসাবে এসেছিলেন, তিনি তাঁর ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কিত অনেকগুলি কথা প্রকাশ করেছিলেন। নাচের সময়, শোয়ের প্রতিযোগী বলেছিলেন যে তিনি তার বাবাকে খুব ভালোবাসেন এবং তাই তিনি তার বাবাকে বাবা নয়, ভাই বলে ডাকেন।

প্রতিযোগীর মুখ থেকে এমন কথা শুনে মিঠুন চক্রবর্তীও তার জীবনের সাথে সম্পর্কিত একটি গল্প শেয়ার করেছিলেন যা সেখানে বসে থাকা সকলকে হতবাক করে দিয়েছিল। সেদিনই মিঠুন দাও প্রকাশ করেছিলেন যে তার সন্তানরা তাকে কখনই বাবা বলে ডাকে না। এর পেছনের গল্প শেয়ার করতে গিয়ে মিঠুন দা বলেন, “আমি ৩ ছেলে ও ১ মেয়ের বাবা কিন্তু আমার সন্তানদের কেউই আমাকে বাবা বলে ডাকে না, চারজনই আমাকে মিঠুন বলে ডাকে।”

মিঠুন আরোও জানান, আসলে তার সন্তানরা তাকে পাপা না ডাকেনা কারন তিনি তার ছেলে মেয়েদের সাথে বন্ধুর মতো মেশেন। উল্লেখ্য, মিঠুন চক্রবর্তী ১৯৭৬ সালে ‘মৃগয়া’ ছবির মাধ্যমে তার ক্যারিয়ার শুরু করেন। মিঠুন প্রথম ছবি থেকেই দর্শকদের মধ্যে নিজের জায়গা তৈরি করতে সক্ষম হন এবং এই ছবির জন্য তিনি সেরা অভিনেতার জাতীয় পুরস্কারও পান।

 

Related Articles

Back to top button