গসিপবিনোদনসিরিয়াল

উচ্ছেবাবুর পর মিঠাই সিরিয়ালে জনপ্রিয় হচ্ছে রুডি, নিপার রুদ্রদাও পরিণত হচ্ছে বাংলা ক্রাশে!

মিঠাই (Mithai) সিরিয়ালের জনপ্রিয়তা নিয়ে আলাদা করে কিছুই বলার নেই। শুরু থেকেই দর্শকদের মন জয় করেছে মিঠাই। আর সিরিয়ালে উচ্ছেবাবু আর মিঠাইয়ের জুটি বাকিদেড় ছাপিয়ে অনেক বেশি জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। এক সময় যে উচেবাবু কিনা বিয়েটা মানতই না, সে আজ মিঠাইয়ের ভালোবাসা ঠিকই বুঝতে পারছে। তাই তো মিঠাইয়ের বিপদ শুনে সিঙ্গাপুর থেকে ফিরে এসেছে বাঁচাতে।

এদিকে মিঠাই-সিড ছাড়াও শ্রীতমা-রাতুল জুটি রয়েছে সিরিয়ালে। শ্রীতমা রাতুলের মাঝের ভুল বোঝাবুঝি দূর করতে একটা প্ল্যান করা হয়েছিল যেখানে নিপাকে সিডের বন্ধু রুদ্রদার প্রেমে পড়ার অ্যাক্টিং করার কথা বলা হয়েছিল। কিন্তু আসলে নিপা রুদ্রদারই প্রেমে পরে গিয়েছে। অবশ্য প্রেমে পড়েছে নয় একেবারে হাবুডুবু খাচ্ছে।

সিরিয়ালে রুদ্রকেও দেখতে যেমন হ্যান্ডসাম তেমনি তার চরিত্র। সিড অর্থাৎ সিদ্ধার্থ ইতিমধ্যেই বাংলার মেয়েদের ক্রাশে পরিণত হয়েছিল। এবার ধীরে ধীরে রুদ্রর প্রতিও রীতিমত ক্রাশ কাছে মহিলা দর্শকেরা। সিরিয়ালে রুদ্রর চরিত্রে অভিনয় করছেন ফাহিম মির্জা (Fahim Mirza)। অভিনয়ের জেরে ধীরে ধীরে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে  পড়েছেন অভিনেতা।

রুদ্রদা বলতে একেবারে অজ্ঞান নিপা। সিরিয়ালে মাঝে মধ্যেই রুদ্রদার কথা ভেবে পাগলামি করতে দেখা যায় নিপাকে। বাড়ির সকলে মিলে তাকে বোঝানোর চেষ্টা করলেও আদতে কিছুই লাভ হয়নি জব্বর প্রেমে পড়েছে সে। রুদ্রদার ছবিই চোখের সামনে ভেসে চলেছে নিপার। কখনো শাড়ি পড়ছে তো কখনো আইপিএস হবার স্বপ্ন দেখছে নিপা।

সব কিছু মিলিয়ে মিঠাই-সিডের পরে রাতুল-শ্রীতমা ছাড়াও নিপা আর রুদ্রদার জুটি কিন্তু এখন বেশ জনপ্রিয়। আর সিদ্ধার্থ বাদে রুদ্রকেও দর্শকেরা দারুন পছন্দ করছে। একপ্রকার বলা যেতেই পারে সিডের মতোই জনপ্রিয়তার দিকে ছক্কা হাঁকাচ্ছে রুদ্রদা। প্রসঙ্গত, মিঠাই সিরিয়াল ছাড়াও কড়িখেলা সিরিয়ালেও অভিনয় করছেন রুদ্র অভিনেতা ফাহিম মির্জা।

Related Articles

Back to top button