বিনোদনসিরিয়াল

বাচ্চা মেয়ে নিপা করে দেখাল অথচ মিঠাই চুমু খেলেই দোষ! সিরিয়ালের লেখিকার ওপর ক্ষোভ দর্শকদের 

বিগত প্রায় দু বছর ধরে বাংলার ঘরে ঘরে পৌঁছে গিয়েছে ‘মিঠাই’ (Mithai)-এর  মিষ্টতা। শুরু থেকেই মনোহরার মোদক  পরিবারের সদস্যদের সুখ-দুঃখের অঙ্গ হয়ে উঠেছেন দর্শকরাও। ধারাবাহিকের নায়িকা মিঠাই অন্ত প্রাণ দর্শকদের। তার সাথে খুনসুটি,হাসি ঠাট্টা,চলাফেরা সবকিছুই ভীষণ পছন্দ করেন দর্শকরা।বাংলার অসংখ্য তরুণীদের ক্রাশ মিঠাইরানির উচ্ছেবাবুও।

দর্শকরা ভালোবেসে তাদের নাম দিয়েছেন ‘সিধাই’ (Sidhai)। টিভির পর্দায় সিদ্ধার্থ মিঠাইয়ের রোমান্স দেখতে বসলে চোখ সরে না কারোর । কিন্তু বিগত বেশ কিছুদিন ধরেই সিরিয়ালের টিআরপি কমার সাথে সাথে হয়ে  সময়টা একেবারেই ভালো যাচ্ছেনা মিঠাইরানির মোদক পরিবারের। জানা গিয়েছে আগামী মাসেই অর্থাৎ ১৮ই নভেম্বর থেকে বদলে গেছে মিঠাই সম্প্রচারের সময়। রাত আটটার বদলে এই ধারাবাহিক সম্প্রচারিত হবে সন্ধে ৬ টা থেকে।

আর মিঠাইয়ের সময়ে দেখা যাবে নতুন সিরিয়াল ‘নিম ফুলের মধু’। যা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় জারি রয়েছে মিঠাই ভক্তদের আন্দোলন। এরই মধ্যে কাটা ঘায়ে নুনের ছিঁটে দিয়েই মিঠাই ফ্যানদের রাগ আরও একধাপ বাড়িয়ে দিয়েছেন সিরিয়ালের লেখিকা। আসলে বেশ কিছুদিন ধরেই এই সিরিয়ালের দর্শক চাইছিলেন মিঠাই রানির জীবনে একটা ছোট্ট হালুম আসুক।

অবশেষে দর্শকদেড় সেই অপেক্ষার অবসান ঘটতে চলেছে। সমস্ত দ্বিধাদ্বন্দ্ব কাটিয়ে সিদ্ধার্থ সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবার তাদের জীবনেও ছোট্ট হালুম আসবে। তারপরেই সিদ্ধার্থ মিঠাইয়ের মধ্যে দেখা যায় মিষ্টি মুর্হুত। কিন্তু তা ‘সিধাই মোমেন্ট’ হিসাবে যথেষ্ঠ ছিল মনে বলে দাবি করেছিলেন দর্শকদের একটা বড় অংশ। কারণ তারা সিদ্ধার্থ মিঠাইয়ের মধ্যে আরেকটু বেশি রোম্যান্স আশা করেছিলেন।

(ভিডিওটি দেখার জন্য ওপরের লিংকে ক্লিক করুন )

সে সময় একদল মিঠাই ভক্ত দাবি করেছিল এটা একটা পারিবারিক সিরিয়াল। তাই বড়দের পাশাপাশি বাচ্চারাও দেখে এই ধারাবাহিক। তাই যতটুকু দেখানো হয়েছে ততটুকুই ঠিক আছে। এর বেশি দেখালে আর পরিবারের সদস্যদের সাথে বসে দেখা যাবে না এই সিরিয়াল। এরই মধ্যে যারা এই সিরিয়ালের গতকালের পর্ব দেখেছেন তারা জানেন এই এপিসোডে একটি দৃশ্য ছিল যেখানে দেখা গিয়েছে নিপা গিয়ে রুদ্রর গালে চুমু খেয়েছে।

সেই দৃশ্যের  একটি ছবি ভাইরাল হয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। এই দৃশ্য শেয়ার করে মিঠাই ভক্তরা  সিরিয়ালের লেখিকা এবং পরিচালকের ওপর ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন। তাদের দাবি যেটা নিপা রুদ্র যেটা করে দেখালো সেটা সিড মিঠাই কেন করতে পারল না।  এই নিয়েই সোশ্যাল মিডিয়ার মিঠাই ভক্তদের মধ্যে শুরু হয়েছে ব্যাপক বিতর্ক। অনেকে বলেছেন এক্ষেত্রে যদি দাবি করা হয় নিপা বাচ্চা মেয়ে তাই সে ছেলেমানুষি করে এমনটা করেছে। তাহলে এক্ষেত্রে বলা যায় মিঠাই কিন্তু নিপার থেকেও ছোট তাই সেও এই ধরনের ছেলেমানুষি করতেই পারতো।

Related Articles

Back to top button