গসিপবিনোদনসিনেমা

ক্লাস ২ তে প্রথম বরের সিনেমা দেখেছিলেন! আজ শাহীদ কাপুরের ২ সন্তানের মা মীরা রাজপুত

কথায় আছে ‘বয়স একটা সংখ্যা মাত্র’। কথাটা সকলের ক্ষেত্রেই বিশেষ করে বলিউডের পাওয়ার কাপল শাহীদ কাপুর ( Shahid Kapoor) এবং মীরা রাজপুতের (Meera Rajput) ক্ষেত্রে ভীষণভাবে প্রযোজ্য। সমালোচকদের বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বেশী বয়সের ফারাক নিয়েই সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন শাহীদ মীরা। তাঁদের মধ্যে বয়সের বিস্তর ফারাক থাকলেও তা কখনই তাঁদের সম্পর্কের ক্ষেত্রে বাঁধা হয়ে দাঁড়াতে পারেনি।

উল্লেখ্য তথাকথিত ফিল্মি ইন্ডাস্ট্রি থেকে না হলেও ফিটনেস ফ্রিক শাহীদ ঘরনী বলিউড সুন্দরীদের থেকে রূপে গুণে কোনো দিক দিয়ে কম যান না। দিল্লির বাসিন্দা মীরা ২০১৫ সালে মাত্র ২০ বছর বয়সেই বয়সে নিজের থেকে ১৪ বছর বড় শাহীদ কাপুরের সাথে বিয়ে করতে গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন। বিয়ের পর থেকে আজ অবধি একে অপরের প্রতি ভালোবাসা জাহির করতে কখনও কার্পণ্য করেননি বলিউডের এই পাওয়ার কাপল।

Shahid Kapoor Mira Rajput
সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে শাহীদা ঘরের মীরা রাজপুতের একটি সাক্ষাৎকার। সেখানে মীরার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল শাহিদ কাপুরের প্রথম ছবির কোনও স্মৃতি তার মনে আছে কিনা। এমন প্রশ্নের মুখে পড়ে দুই সন্তানের মীরা প্রথমে হাসি চেপে রাখতে না পারলেও পরে একটু সামলে নিয়ে জানিয়েছিলেন তার স্বামীর প্রথম ছবি ‘ইশক ভিশক’ মুক্তির সময় তার বয়স ছিল সাত বছর। তিনি তখন স্কুলে পড়তেন। সেই সাথে তিনি জানান সেসময় সবাই শাহীদকে ‘চকলেট বয়’ বলে ডাকতেন।

এছাড়াও আরও একটি মজার ঘটনা শেয়ার করেছেন মীরা। ওই সাক্ষাৎকারে মীরাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, বিয়ের আগে শাহিদের ছবি দেখে মীরার কখনও তাঁর প্রতি ভাল লাগা তৈরি হয়েছিল? এর উত্তরে মীরা জানান, তাঁর এক বান্ধবী শাহিদকে পছন্দ করতেন। মীরার কাছেই তার বান্ধবী বলতেন, ‘তুমি জানো, স্কুলে পড়ার সময় থেকেই আমি শাহিদকে পছন্দ করতাম?’

তখন অবশ্য শাহিদ মীরার জীবনের অংশ হয়ে ওঠেননি,তাই শাহীদকে নিয়ে কোনও রকম আগ্রহ ছিল না মীরার। তাঁর কথায়,‘শাহিদ তো তখনও আমার জীবনের অংশ নয়।’ আর এখন শাহীদের সাথে মীরার বিয়ের পর এই বিষয়টা নিয়ে স্মৃতি চারণা করে বারবার হেসে ওঠেন দুই বান্ধবী।

Related Articles

Back to top button