বিনোদনসিনেমা

টলিউডের সুন্দরী মিমি চক্রবর্তীর সাথে বিশ্বাসঘাতকতা! টুইটারে নাম নিয়ে বিস্ফোরক অভিনেত্রী

ফোন খুলতেই মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ল বাংলার তারকা সংসদ মিমি চক্রবর্তীর মাথায়। উধাও হাজার হাজার ছবি এবং ভিডিও। অনেক চেষ্টা করেও কিছুতেই সেই স্মৃতির ভান্ডার উদ্ধার করতে পারেননি মিমি। শেষ পর্যন্ত রাগে, দুঃখে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে উগরে দিলেন সমস্ত ক্ষোভ। সেইসাথে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতেন কাঠগড়ায় তুললেন নির্দিষ্ট মোবাইল ফোন সংস্থাকেও।

দিনের দিনের দিন জমতে থাকা অগণিত স্মৃতি নিমেষে উধাও মুঠোফোন থেকে। একটি দুটি নয় অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর অভিযোগ একসাথে সাত হাজার ছবি, ৫০০ ভিডিয়ো উধাও হয়ে গেছে তার ফোন থেকে। লাগাতার যার কারণ হাতড়াতে হাতড়াতে মুষড়ে পড়েছেন মিমি। আসলে আমজনতা হোক কিংবা তারকা আমাদের প্রত্যেকেরই এক একটি ছবির সাথে জড়িয়ে থাকে অসংখ্য স্মৃতি।

ব্যতিক্রম নন মিমি চক্রবর্তীও। মাসের পর মাস ধরে জমানো স্মৃতি এক নিমেষে হারিয়ে ফেলে অভিনেত্রীর মনে হচ্ছে সব হারিয়ে ফেলেছেন তিনি। শেষমেশ কোনো উপায় না পেয়ে বাধ্য হয়ে টুইটারে সেই ফোন প্রস্তুতকারক সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছেন মিমি।

সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে অ্যাপেল আইফোন সাপোর্ট টিমকে ট্যাগ করে তাঁদের কাছে সাহয্যের আর্জি জানিয়েছেন অভিনেত্রী লিখেছেন, ‘সাত হাজার ছবি, ৫০০ ভিডিয়ো মুছে গিয়েছে! সব হারিয়ে গেল। আমি কী করব বুঝতে পারছি না! কাঁদব চিৎকার করে? পুনরুদ্ধারের সমস্ত রকম চেষ্টা করে দেখেছি। কোনও সাহায্য পাইনি।’

এরপরেই তার পরে সংস্থার নাম উল্লেখ করে বিরক্তি প্রকাশ করে মিমি লিখেছেন, ‘বিরক্ত লাগছে এখন। অ্যাপেল সাপোর্ট প্লিজ কিছু করুন।’ উল্লেখ্য মাস কয়েক আগেই অ্যাপেলের নতুন ফোন কিনেছেন মিমি। আর সেই ফোন থেকে হঠাৎ সমস্ত স্মৃতি হারিয়ে অভিনেত্রী বলেছেন ‘এমন অনেকে আছে, যাদের ছবি শুধুমাত্র ওই ফোনেই রাখা ছিল। তাদের অনেকেই এখন আর পৃথিবীতে নেই। ওইটুকুই ছিল স্মৃতি হিসেবে।’

Related Articles

Back to top button