গানবিনোদন

আমি কারও সাহায্য পাইনি! গানের জগতে নতুন শিল্পীদের সুযোগ দেওয়া নিয়ে বিস্ফোরক কুমার শানু

কুমার শানু (Kumar Shanu) মানেই ‘মেলোডি কিং'(Melody King)। দীর্ঘদিনের কেরিয়ারে একের পর এক উপহার দিয়েছেন একের পর এক সুপারহিট সব গান। বছরের পর বছর শুনলেওসেইসব গান পুরোনো হওয়ার নয়। সত্যি বলতে বরাবরই এক অদ্ভুত জাদু রয়েছে কুমার শানুর গানের গলায়। যা শুনলে আজও এককথায় মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে পড়েন তাঁর অসংখ্য অনুরাগী।

একটা সময় ছিল যখন কোনো রকম প্রশিক্ষণ না নিয়েই শুধুমাত্র কিশোর কুমারের গান শুনে গায়ক হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন কুমার শানু। আর আজ তিনি দেশের অন্যতম কিংবদন্তী সঙ্গীতশিল্পী। কিশোর কুমারকে নিজের গুরু মানেন তিনি।

কুমার শানু,Kumar Shanu,মেলোডি কিং,Melody King,সংগীতশিল্পী,Musician,অতীতের অভিজ্ঞতা,Past Experience,খারাপ অভিজ্ঞতা,Bad Experience,নতুন প্রতিভা,New Talent

এ প্রসঙ্গে একবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন ‘জীবনে যত বার ভেঙেছি, ওই মানুষটাই যেন এক বুক সাহস নিয়ে এসেছেন আমার সামনে। সেই সাহসকে সম্বল করেই আজ থেকে অনেক বছর আগে এসেছিলাম মুম্বইতে। গানের বিশেষ কোনও প্রশিক্ষণ না পেয়েও স্বপ্ন দেখেছিলাম গায়ক হওয়ার। মনে কিশোরদা ছিলেন বলেই হয়তো স্বপ্ন দেখার সাহসটুকু করেছিলাম।’

আর শুনতে অবাক লাগলেও সেই কিশোর কুমারের সাথেই পরে তুলনা হতে শুরু করে কুমার শানুর। শুরু থেকেই নাকি কিশোর কুমারের ক্লোন বলা হত কুমার শানুকে। তবে এই তুলনা কখনও খারাপ লাগেনি কুমার শানুরও। এপ্রসঙ্গে তিনি নিজের মুখে বলেছিলেন কিশোর কুমারের সাথে এই তুলনা আমার কখনও খারাপ লাগেনি। আমি কিশোরদার পদাঙ্ক অনুসরণ করেছি। তাঁর সঙ্গে তুলনা আমাকে অনেকটা এগিয়ে যেতে সাহায্য করেছে।’

Kumar Shanu was also rejected once Shares his love story on Super Singer 3
প্রসঙ্গত তিনি জাতীয় স্তরের নামি গায়ক। আর এই সাফল্যের পরেও কিন্তু আজও কুমার শানুর পা রয়েছে মাটিতেই। তাই এত বড় মাপের একজন শিল্পী হয়েও নতুনদের সাথে গান গাইতে দুবার ভাবেন না কুমার শানু।  একসময় যে সাহায্যটা অন্যদের থেকে তিনি পাননি, তিনি চাননা সেটা আজকের নতুন শিল্পীদের সাথেও হোক। নতুন শিল্পীদের (New Artist) মনের জোর বাড়াতে তাদের সাথে নিজের খুশিতেই  ডুয়েট গান তিনি।

সম্প্রতি সিটি সিনেমা আর একটি ইউটিউব ভিডিওতে কুমার শানুর একটু নতুন গান রেকর্ডিংয়ের ভিডিও এবং সাক্ষাৎকার প্রকাশ করা হয়েছিল। সেখানে এদিন নিজের স্ট্রাগল লাইফের কথা শেয়ার করতে গিয়ে তিক্ত অভিজ্ঞতার (Bad Experience) কথা জানান কুমার শানু।  শিল্পীর কোথায় সেসময় তার পাশে কেউ দাঁড়ায়নি। কিন্তু তিনি নতুনদের পাশে দাঁড়ানোর কর্তব্য পালন করেন।  এতে অনেক শিল্পী উঠে আসে আবার অনেকে হারিয়ে যায়।

Related Articles

Back to top button