গসিপবিনোদন

নিজের হাতে গামছা কাপর কিনে পোশাক বানাই! সিরিয়াল ছাড়লে মন দিয়ে বুটিকই করবেন মানসী সিনহা

ছোট পর্দা বলুন বা বড় পর্দা মানসী সিনহার (Manasi Sinha) অভিনয় দেখলে চোখ সরানো দায় হয়ে পড়ে। গত কয়েক দশক ধরেই বিভিন্ন চরিত্রে অনবদ্য অভিনয় দিয়ে প্রাণ প্রতিষ্ঠা করেছেন তিনি। কখনো সুপারস্টার অভিনেতাদের মায়ের চরিত্রে, কখনও বা রজতাভ, শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের মতো অভিনেতাদের সাথে সহ অভিনেত্রী হিসেবে দেখা মিলেছে তার। তার অভিনয় দেখলেই নিমেষে মন ভালো হয়ে যায়। সদা হাস্য ভরাট মুখ, আর সরলতাই তার মূল ইউএসপি। কাজ তার পিছু পিছু ছোটে।

সম্প্রতি তাকে দেখা যাচ্ছে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘আমাদের এই পথ যদি না শেষ হয়’ এর একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে। পর্দার দাপুটে এই অভিনেত্রীর স্বামী, দুই সন্তান আর শাশুড়ী নিয়ে ভরা সংসার। অভিনেত্রীর দুই যমজ পুত্র কন্যা এখন ক্লাস এইট, তবে তারা যথেষ্ট সাবলম্বী। পর্দার মানসী মানেই পাট করা তাঁতের শাড়ি, ঢিলে খোপা আর লাল একটা টিপ। তার সাজ পোশাক দেখে মোহিত না হয়ে উপায় থাকেনা।

কিন্তু নিজে সাজার থেকেও লোককে সাজাতেই বেশি ভালোবাসেন অভিনেত্রী৷ হয়ত জানেন না অনেকেই, অভিনয়ের পাশাপাশি মানসীর নিজস্ব একটি বুটিকও রয়েছে। নেহাৎ শখের বসেই তিনি বুটিক শুরু করেছিলেন। খাদি কাপড় আর মুর্শিদাবাদের বেলডাঙা থেকে গামছা এনে মহিলা পুরুষ নির্বিশেষে সকলের জন্যেই পোশাক বানান তিনি। কিন্তু কখনো কোনোও বিজ্ঞাপন দিতে দেখা যায়নি তাকে, তার হাতের কাজ এতটাই সুন্দর যে মুখে মুখেই তা পৌঁছে গিয়েছে বহুদূর।

নিজের শখটাকে সন্তানের মতোই ভালোবাসেন তিনি। কারিগর থাকলেও সমস্ত পোশাক নিজে হাতেই ডিজাইন করেন মানসী। কখনও সিরিয়াল জগত থেকে দূরে সরলে হয়ত বুটিককেই পেশা হিসেবে নিতেন তিনি। কিন্তু অভিনেত্রীর কথায়, ‘‘সিরিয়াল মানে স্টেডি ইনকাম। সেই অর্থ যদি বুটিক থেকে না আসে? তখন কী হবে? এখনও আমার সেই আত্মবিশ্বাস আসেনি,’’

কমেডি চরিত্রের জন্য বেশ প্রসিদ্ধ মানসী, কিন্তু তার গম্ভীর অভিনয় করার ইচ্ছে ষোলো আনা। তার স্বপ্নের চরিত্র ‘হাজার চুরাশির মা’-এ মা অর্থাৎ সুজাতা। ভবিষ্যতে অভিনয়ের পাশাপাশি নাটক পরিচালনার ও ইচ্ছে রয়েছে তার।

Related Articles

Back to top button