গসিপবিনোদন

কাজ দেবার নামে শরীরের দিকে নজর, বলিউডের নোংরামি নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য মল্লিকা শেরাওয়াতের

বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী মল্লিকা শেরাওয়াতকে (Mallika Sherawat) অনেকদিক হয়ে গেল কোনও ছবিতে দেখা যায় না। তবে এখনও তাঁর অভিনীত বিভিন্ন বোল্ড দৃশ্য দর্শকদের মনে গেঁথে রয়েছে। তবে এবার সেই অভিনেত্রীই বলিপাড়ার (Bollywood) এক নোংরা দিক সম্বন্ধ নিজের মুখ খুলেছেন। দর্শকদের সামনে এনেছেন বলিউডের এক কালো সত্যি।

সম্প্রতি মল্লিকা বলেন, বলিউডে সব সময় নাকি তাঁর শরীরটাকেই দেখা হতো। সর্বক্ষণ সেদিকেই নজর থাকত সকলের। পাশাপাশি ইন্ডাস্ট্রিতে একটি গ্রুপের ওপর গুরুতর অভিযোগও এনেছেন নায়িকা। নিজের  বছরের ফিল্মি কেরিয়ারের বিষয়ে কথা বলার সময় এসব কথা বলেছেন অভিনেত্রী।

Mallika Sherawat

বলিউডে নিজের সফর সম্বন্ধে এক সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় মল্লিকা বলেন, আগে ওনার শরীর এবং গ্ল্যামারকেই শুধুমাত্র ফোকাস করা হতো। তাঁর শরীরের দিকেই নজর থাকত। অভিনয় প্রতিভার দিকে নয়। পাশাপাশি বলিউডে একটি গ্রুপের বিরুদ্ধে তাঁর বিরুদ্ধে মানসিক অত্যাচারের অভিযোগও এনেছেন অভিনেত্রী।

মল্লিকা বলেন, ‘আগে অভিনেত্রীদের একেবারে সতী-সাবিত্রী রূপে দেখানো হতো। এরপর চরিত্রহীনা হিসেবে দেখানো শুরু হল। মহিলাদের জন্য স্রেফ দু’ধরণের চরিত্র লেখা হতো। তবে এখন বদল এসেছে। এখন মহিলাদের মানুষ হিসেবে দেখানো হয়। তাঁরা খুশি কিংবা দুঃখী হতে পারেন, ভুল করতে পারেন, তা সত্ত্বেও দর্শকরা ওনাদের ভালোবাসেন’।

Mallika Sherawat

শুধু এটুকুই নয়, মল্লিকা এরপর তাঁর ছবি ‘মার্ডার’এর সঙ্গে দীপিকা পাড়ুকোনের ‘গেহরাইয়া’ ছবির তুলনা করে বলেন, বলিউডের ‘মস্তানি’ যেটা এখন করছেন, তিনি সেটা ১৫ বছর আগে করেছেন। অভিনেত্রীর কথায়, ‘দীপিকা যেটা এই ছবিতে (গেহরাইয়া) করেছে, সেটা আমি ১৫ বছর আগে মার্ডার ছবিতে করেছিলাম। কিন্তু তখন সকলে আমার চুমুর দৃশ্য এবং বিকিনি নিয়ে কথা বলেছিল… তখন মানুষের চিন্তাধারা খুব ছোট ছিল’।

মল্লিকার সংযোজন, ‘আমি এটাও বলতে চাই, ইন্ডাস্ট্রি এবং মিডিয়ার একটি গ্রুপ আমার ওপর বারবার মানসিক অত্যাচার করেছে। তাঁরা সর্বদা শুধু আমার শরীর এবং গ্ল্যামারের বিষয়ে কথা বলতেন। আমার অভিনয়ের বিষয়ে নয়। আমি ‘দশাবতরম’, ‘প্যায়ার কে সাইড এফেক্টস’, ‘ওয়েলকাম’এর মতো ছবিগুলিতে ভালো অভিনয় করেছিলাম। কিন্তু তাও কেউ আমার অভিনয় নিয়ে কথা বলেনি’।

Related Articles

Back to top button