খবরবিনোদন

রাম-হীন রামায়ণ! রাবণের ভূমিকায় হৃত্বিক, এদিকে রামের চরিত্র করতে অস্বীকার করলেন মহেশ বাবু

হৃত্বিক রোশন রাবণ, দীপিকা পাড়ুকোন সীতা, এবং রামের ভূমিকায় দক্ষিণী সুপারস্টার মহেশ বাবু (Mahesh Babu) – এমনই ধামাকাদার কাস্ট নিয়ে রামায়ণের কাহিনি কেন্দ্রিক ছবি ‘রামায়ণ থ্রিডি’ ( Ramayana 3D) বানানোর পরিকল্পনা করেছিলেন প্রযোজক মধু মান্তেনা। রামায়ণ থ্রিডি বাদেও দীপিকা পাডুকোন এবং হৃত্বিক রোশন জুটি বাঁধতে চলেছে সিদ্ধার্থ আনন্দের পরিচালনায় ভারতের এরিয়াল অ্যাকশন-থ্রিলার, ফাইটার -এ। যার শ্যুটিং শুরু হতে চলেছে ২০২২ এই।

তবে রামায়ণ থ্রিডির জন্য কাস্টিং ঠিক হয়ে যাওয়ার পরেও, শোনা যাচ্ছে এই প্রকল্প থেকে সরে এসেছেন মহেশ বাবু। কী এমন ঘটল যার জন্য এমন দুর্দান্ত চরিত্র করতেও অসম্মত হলেন দক্ষিণী সুপারস্টার। বলিউড সূত্রে খবর, ২০২২ সালে পরিচালক নীতেশ তিওয়ারি ও মহেশের শুটিং করার কথা ছিল। কিন্তু ওই সময়েই নাকি এস এস রাজমৌলির একটি ছবির কাজ পড়ে গিয়েছে মহেশের।

অর্থাৎ রামায়ণ থ্রিডি’র সঙ্গে ডেট নিয়ে সমস্যা হওয়ার কারণেই ছবিটি থেকে সরে এসেছেন অভিনেতা। নীতেশের ছবিকে ছেড়ে রাজামৌলির ছবিটিকেই প্রাধান্য দিচ্ছেন অভিনেতা। মহেশের এই হঠাৎ সিদ্ধান্ত বদলে বেশ সমস্যায় পড়েছে গোটা টিমই। যেখানে লঙ্কারাজের ভূমিকায় হৃত্বিক, সীতার ভূমিকায় দীপিকা, মহেশকে সেখানে দুর্দান্ত মানাতো রামের চরিত্রে। কিন্তু হঠাৎই ছবি থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন মহেশ বাবু।

প্রসঙ্গত, মহেশ বাবুকে পরবর্তীতে পরশুরাম পরিচালিত “সারকারু ভারি পাটা” ছবিতে দেখা যাবে যা ২০২২ এর মুক্তির জন্য নির্ধারিত হয়েছে। অন্যদিকে “আরআরআর-রৌদরাম রণম রধীরাম” -র দশেরার আগে মুক্তি পাবে।

 

অন্যদিকে, ‘আতহাদু’ ও ‘খালেজা’র পর দীর্ঘ ১১ বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে জনপ্রিয় তেলেগু পরিচালক ত্রিবিক্রম শ্রীনিবাসের সিনেমায় কাজ করতে যাচ্ছেন সুপারস্টার মহেশ বাবু। গেল মে মাসেই জানা গিয়েছিল সেই খবর। সিনেমার প্রাথমিক নাম ‘পারথু’। হরিকা ও হাসিন ক্রিয়েশনসের ব্যানারে সিনেমাটি প্রযোজনা করছেন এস রাধা কৃষ্ণ। এর জন্য নাকি ৫৫ কোটি টাকা পারিশ্রমিক চেয়েছেন অভিনেতা।

Related Articles

Back to top button