গসিপবিনোদনসিনেমা

পরিচালক কাট বললেও ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে মত্ত! মাধুরীকে কিস করতে ব্যস্ত ছিলেন বিনোদ খান্না

চরিত্রের খাতিরে অনেক সময় নানান অন্তরঙ্গ দৃশ্যতে অভিনয় করতে হয় অভিনেতাদের। তবে সিনেমার পর্দায় আমরা ততটুকুই দেখি যতটুকু পরিচালক আমাদের দেখাতে চান।তাই পর্দায় যা ঘটে আপাতদৃষ্টিতে তার সবটাই আমাদের অভিনয় মনে হয়। কিন্তু অভিনেতারাও তো মানুষ! তাই আর পাঁচজন সাধারণ মানুষের মতোই অনেক সময় তাঁদেরও আবেগের বাঁধ ভেঙে যায়। চরিত্রের সাথে তাঁরা এতটাই মগ্ন হয়ে পড়েন যে একসময় তাঁরা বাস্তবতা আর অভিয়ের সূক্ষ্ম পার্থক্য ভুলে চরিত্রের সাথে একাকার হয়ে যান।আর এভাবেই আবেগের কাছে অভিনয় হার মানলে তৈরি হয় এক চরম অস্বস্তিকর পরিবেশের।এখন জল ভাত মনে হলেও একটা সময় ছিল যখন অনেক সাহস করে অভিনেতারা এধরনের অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করতে রাজি হতেন। কারণ এধরনের সাহসী চরিত্রে অভিনয় করার পর তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হত তাঁদের।

একটা সময় একাই বলিউডের রাজপাট সামলেছেন দেশের “এভার গ্রিন” অভিনেত্রী মাধুরী দীক্ষিত(Madhuri Dixit)। তবে তাঁর সাফল্যের পথ মোটেই মসৃণ ছিল না।১৯৮৪ সালে তাপস পালের(Tapas Pal) বিপরীতে ‘অবোধ’(Abodh) ছবিতে অভিনয় করে বলিউডে আত্মপ্রকাশ ঘটে মোহময়ী মাধুরীর। যা মুখ থুবড়ে পড়ে বক্স অফিসে। শুধু তাই নয় একটা সময় অন্তরঙ্গ দৃশ্যে অভিনয় করে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছিল বলিউডের ‘ধক ধক গার্ল’ মাধুরী দীক্ষিতকেও।বিনোদ খান্নার (Vinod Khanna) বিপরীতে মাধুরী অভিনিত এই ছবিটির নাম ‘দয়াবান'(Dayavaan)।এই ছবিতে অভিনয় করার জন্য পরে আক্ষেপ করেছিলেন মাধুরী দীক্ষিত নিজেই।

Madhuri Dixit Intimate Scene with Binod Khanna

ছবিটির জনপ্রিয় গান ‘আজ ফির তুমপে পেয়ার আয়া হ্যায়’-র একটি দৃশ্যে মাধুরীর সাথে বিনোদ খান্নার বেশ কিছু অন্তরঙ্গ দৃশ্য ছিল।সেখানে মাধুরীর সাথে তাঁর কিসিং সিন ছিল।পরিচালক ‘অ্যাকশন’ বলার পর বিনোদ খান্না নিজের চরিত্রে এতটাই মগ্ন হয়ে পড়েন যে মাধুরীকে চুমু খেতে খেতে নিজেকে সামলাতেন পারেননি তিনি। কামড় বসিয়ে দেন মাধুরীর ঠোঁটে।এমনকি পরিচালক কাট বলার পরেও শুনতে না পেয়ে মাধুরীকে কিস করেই যাচ্ছিলেন বিনোদ খান্না। নিজের থেকে ২০ বছরের বড় বিনোদ খান্নার এই আচরণে প্রচন্ড রেগে গিয়েছিলেন মাধুরী। পরে তিনি আফসোস করে জানিয়েছিলেন এই ধরনের দৃশ্য করতে রাজি হওয়াই উচিত হয়নি তাঁর।

Madhuri Dixit Intimate Scene with Binod Khanna

জানা যায় এই দৃশ্যের শ্যুটটি একবারেই শেষ করতে চেয়েছিলেন মাধুরী।তবে পরিচালকের নির্দেশে তাঁকে বহুবার এই দৃশ্যের শুটিং করতে হয়েছিল। যার কারণে খুবই অস্বস্তি বোধ করছিলেন মাধুরী। বলা হয় এই দৃশ্যে অভিনয় করার পর মাধুরীর সাথে বিনোদ খান্নার সম্পর্কে তিক্ততা তৈরি হয়। এবিষয়ে একটি সাক্ষাৎকারের মাধুরী বলেছিলেন , ‘ যখন এই দৃশ্যের শুটিং করেছিলাম তখন আমি খুব ঘাবড়ে গিয়েছিলাম। যদিও বিনোদ খান্নাও নার্ভাস ছিলেন। পরে বিনোদ খান্নাও আমার কাছে ক্ষমা চেয়েছিলেন।’

তবে অভিনয় করতে করতে কন্ট্রোল হারিয়ে ফেলাটা বিনোদ খান্নার কাছে এই প্রথম নয়। আগেও ডিম্পল কাপাডিয়ার (Dimple Kapadia) সাথে ‘প্রেম ধর্ম’ ছবির রোমান্টিক দৃশ্য শ্যুটিংয়ের সময় একই কান্ড ঘটিয়েছিলেন তিনি।ডিম্পলকে চুমু খেতে এতটাই ব্যস্ত ছিলেন তিনি যে পরিচালকের ‘কাট’- ও শুনতে পাননি বিনোদ খান্না।

Related Articles

Back to top button