খবরবিনোদন

দিন কয়েক আগেই প্রয়াত হয়েছেন দিলীপ কুমার! এবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি সায়রা বানু

ফের উদ্বেগ বাড়ছে। গত ৭ ই জুলাই প্রয়াত হয়েছেন গোল্ডেন যুগের অন্যতম অভিনেতা দিলীপ কুমার (Dilip Kumar)। দীর্ঘদিন ধরেই শারীরিক অসুস্থতায় ভুগছিলেন প্রবীণ অভিনেতা।মৃত্যুর ছয় মাস আগেও হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। সেই সময় তার মৃত্যুর খবর রটানো হয় সোশ্যাল মিডিয়াতে। যেটা একেবারেই মিথ্যে বলে জানানো হয় অভিনেতার পরিবারের পক্ষ থেকে। এরপর গত জুন মাসেই সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন দিলীপ কুমার। কিন্তু তারপরেও শেষ রক্ষা হয়নি।

এবার তার স্ত্রী তথা বলিউডের বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সায়রা বানু (Saira Banu) গুরুতর অসুস্থতা নিয়ে ভর্তি হয়েছেন মুম্বইয়ের হিন্দুজা হাসপাতালে। সূত্রের খবর, দিন তিনেক আগে থেকেই রক্তচাপ জনিত সমস্যায় ভুগছিলেন অভিনেত্রী। পরে হৃদযন্ত্রেও সমস্যা দেখা যায়। এরপর অবস্থা ক্রমেই খারাপের দিকে যেতেই তাকে তড়িঘড়ি ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। ইতিমধ্যেই খবর প্রকাশ্যে আসতে চিন্তার ভাঁজ অনুরাগীদের কপালে। আপাতত ICU-তেই চিকিৎসাধীন প্রয়াত অভিনেতা দিলীপ কুমারের পত্নী।

দিলীপ সায়রার সম্পর্ক যেন কোনো প্রেমের উপন্যাসের মতো। দীর্ঘ ৫৪ বছরের দাম্পত্যের পর সায়রাকে একা করে দিয়ে চলে যান দিলীপ কুমার। স্বভাবতই স্বামীর মৃত্যুতে ভেঙে পড়েছিলেন সায়রা। মানসিক যন্ত্রণার রেশ এসে পড়ে শরীরেও। ১৯৬৬ সালে ২২ বছরের ছোট সায়রা বানুকে বিয়ে করেছিলেন দিলীপ কুমার। হাজারো চড়াই উতরাইতেও কেউ কারোর হাত ছাড়েননি।

দিলীপ কুমার চলে যাওয়ায় ক্রমেই সায়রা বানুকে গ্রাস করছিল একাকিত্বের অবিসাদ। আসলে ৫ দশকের দাম্পত্য জীবনেও তারা ছিলেন সন্তানহীন। চিকিত্সকদের কাছে দিলীপ কুমারের মৃত্যুর খবর শুনে সায়রা বানু বলে উঠেছিলেন, ‘ভগবান আমার বেঁচে থাকার কারণটাই কেড়ে নিল… সাহাবকে ছাড়া তো আমার জীবন অর্থহীন, আমি কিছু ভাবতেই পারছি না… দয়া করে সকলে প্রার্থনা করুন’।

Related Articles

Back to top button