বিনোদনসিনেমা

স্মৃতি অমলিন! মৃত্যুর পরেও পর্দায় জীবন্ত ইরফান, এই কারণে দেরিতে মুক্তি পাবে ‘আপনো সে বেওবফাই’

ইরফান খান (Irfan Khan), হিন্দি সিনেমা জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। দেখতে দেখতে ২ বছর হয়ে গেল এই অভিনেতা আজ আর আমাদের মধ্যে নেই। ২০২০ সালের ২৯ এপ্রিল মারণ রোগ ক্যান্সারের কাছে অকালেই হেরে যান তিনি। মায়ের মৃত্যুর পরেই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন অভিনেতা। সিনেমাই ছিল তাঁর জীবনের ধ্যান জ্ঞান। তাই মৃত্যুর আগের দিনগুলোতেও পর্যন্ত তিনি সিনেমা নিয়েই চিন্তাভাবনা করতেন বলে জানা যায়।

ইরফান খানের অভিনয়ের গুণমুগ্ধ আপামর দেশবাসী।এককথায় বলতে গেলে তিনি জাত অভিনেতা। কথায় আছে শিল্পীর মৃত্যু হয় না। নিজের কাজের মধ্যে দিয়েই চিরকাল জীবিত থাকেন তাঁরা। একই কথা খাটে ইরফান খানের ক্ষেত্রেও। তাই ভক্তরা আজও ভুলতে পারেননি অভিনেতা কে। একদিন আগেই অভিনেতার মৃত্যু বার্ষিকীতে নেটিজেনদের সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে সে কথা প্রমাণিত হয়েছে আরও একবার।

এখনও মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে ইরফান অভিনীত একাধিক সিনেমা। যার মধ্যে অন্যতম হল ‘আপনো সে বেওবফাই’(Apno Se Bewafai)। মৃত্যুর আগে বড়পর্দায় মুক্তিপ্রাপ্ত ইরফানের শেষ সিনেমা ছিল ‘আংরেজি মিডিয়াম’ (Angreji Medium)। এই সিনেমাটির ঠিক পরেই মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল ইরফান অভিনীত ফ্যামিলি ড্রামা ‘আপন সে বেওয়াফাই’।


এই সিনেমার পরিচালক পিষূশ শাহ (Piyush Shah) জানিয়েছেন ২০১৯ সালে ছবিটি CBFC থেকে একটি শংসাপত্রও পেয়েছিল। সব ঠিক থাকলে ২০২০ সালের এপ্রিলেই মুক্তি পেত সিনেমাটি। কিন্তু আচমকাই মারণ ভাইরাস করোনার থাবায় সবকিছু ভেস্তে দেয়।যার ফলে বাধ্য হয়েই পিছিয়ে দিতে হয় ছবি মুক্তির দিন। এরপর ঠিক করা হয় প্রয়াত অভিনেতার দ্বিতীয় মৃত্যু বার্ষিকীর দিন অর্থাৎ ২৯ এপ্রিল মুক্তি পাবে এই সিনেমা।


কিন্তু শেষ পর্যন্ত ভেস্তে যায় সেই পরিকল্পনাও। পরিচালকের কথায় ওই একই দিনে মুক্তি পেয়েছে আরও তিনটি বড় মাপের সিনেমা। তাই এদিনও ছবি রিলিজ করা সম্ভব হয়নি। উল্লেখ্য জীবিত অবস্থায় এই ছবি প্রসঙ্গে ইরফান পরিচালক কে পূর্ণ সমর্থন জানিয়ে বলেছিলেন ছবিটি রিলিজ করেই ফেলতে। তাই এখন সম্ভব না হলেও ইরফান খানের অসংখ্য অনুরাগী আর পরিবারের সদস্যদের জন্য আগামীদিনে সিনেমাটি অবশ্যই রিলিজ করা হবে বলে জানিয়েছেন পরিচালক। প্রসঙ্গত ইরফান অভিনীত আরও একটি সিনেমা যা মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে সেটি হল ‘দ্য সং অফ স্করপিয়ন’।

Related Articles

Back to top button