খবরবিনোদনসিরিয়াল

পাল্টিবাজের দুনিয়ায় হেরে গেল সত্যি ভালোবাসা! ধূলোকনার শেষ পর্ব দেখে কটাক্ষ দর্শকদের

শেষ হল দুবছরেরও বেশি পথ চলা, কাল থেকে আর টিভির পর্দায় দেখা যাবে না লালন-ফুলঝুরির কাহিনী ‘ধূলোকনা’ (Dhulokona)। শুরুতে লালন আর ফুলঝুরির ভালোবাসার কাহিনী (Lalon Fuljhuri Love Story) দিয়ে শুরু হলেও বহুবার মোড় বদলেছে গল্প। লালন একাধিক বিয়ে করলেও তাকেই ভালোবেসেছে ফুলঝুরি। প্রেম অবশ্য এসেছিল অংকুরের রূপে কিন্তু সেটা প্রথমে মেনে নেয়নি ফুলঝুরি। তবে শেষের আগে আবারও শুরু হয়েছিল তোলপাড়া করা ট্র্যাক।

সমুদ্রে হারিয়ে স্মৃতিশক্তি হারিয়ে তিতিরকে ভালোবেসে লিপস্টিক দিয়ে বিয়ে করে লালন। নিজের দুর্ভাগ্য মেনে নিয়েছিল ফুলঝুরি কিন্তু তারপরেই দেখা যায় গর্ভবতী হয়ে পড়েছে সে। যদিও কিছুদিন পর জানা যায় মা হচ্ছে না ফুলঝুরি বরং টিউমার ধরা পরে। ফুলঝুরির এই অবস্থার মাঝেই আয়োজন হয় লালন-তিতিরের বিয়ের।

Fuljhuri pregnant in Dhulokona

কিন্তু ফুলঝুরির অসুস্থতার খবর পেতেই অতীতের সব কথা মনে পড়ে যায় তার। গায়ে হলুদ ছেড়ে দৌড়ে চলে আসে হাপাতালে যেখানে ফুলঝুরির মরণ বাঁচন লড়াই চলছে। ইতিমধ্যেই ফুলঝুরির পাশে দাঁড়িয়েছে অঙ্কুর। শুরু থেকেই নিঃস্বার্থভাবে ভালোবেসেছিল সে। আগেও একবার বিয়ের মঞ্চ থেকে উঠে এক করে দিয়েছিল লালন ফুলঝুড়িকে। তাই এবারে যাতে একই ভুল না করে সেটাই চাইছিল দর্শকেরা।

Ankur and Fuljhuri

বাড়ির লোকেরাও ফুলঝুরি আর অংকুরদার বিয়ের আয়োজন হোক এটাই চাইছিল। আর দর্শকদের বেশিরভাগই চাইছিলেন যাতে লালনকে আর মেনে না নেয় ফুলঝুরি। বদলে অঙ্কুরকের কাছে যাওয়া উচিত ফুলঝুরির। কিন্তু শেষ পর্বে কি হবে এই নিয়ে বাড়ছিল উত্তেজনা। অবশেষে শেষ পর্ব সম্প্রসারিত হল কাল। যেখানে দেখা যাচ্ছে অপারেশনের পরে আবারও লালনের কাছেই ফিরল ফুলঝুরি।

Lalon Fuljhuri happy ending

শেষ পর্বে দেখা গেল এক ছাদের তলায় হাজির গোটা পরিবার। এরপর লালন-ফুলঝুরির পাশাপাশি হাজির সাংবাদিকেরাও।  তাদের কাছে ফুলঝুরি জানায়, লালন আমার জীবনে সেই মানুষ যার মধ্যে গভীর আসক্তি থেকে নির্লিপ্তি রয়েছে, ও এমন একটা মানুষ যার সাথে সন্ন্যাস আর সংসার দুটোই করা যায়। লালন ছাড়া অন্য কোনো পুরুষের কথা ভাবতেই পারিনি।’

সিরিয়ালের শেষ পর্বে এই ট্র্যাক দেখে নেটিজেনদের একাংশ খুশি হয়েছেন, অবশেষে এক হল লালন-ফুলঝুরি। তেমনি একাংশ অখুশিও হয়েছেন। অখুশি নেটিজেনদের মন্তব্য সত্যিকারের ভালোবেসেও অংকুরদা বঞ্চিত হল। এ জগতে এভাবেই হেরে যায় সত্যি ভালোবাসার মানুষগুলো।

Related Articles

Back to top button