খবরবিনোদনসিনেমা

২০০ কোটির ঠকবাজের সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক! জ্যাকলিনকে টাকা লোভী ‘গোল্ড ডিগার’ বলে কটাক্ষ কেআরকের

স্বঘোষিত ফিল্ম সমালোচক কামাল রশিদ খান ওরফে কেআরকে (krk)। বলিউড থেকে শুরু করে ওটিটি প্লাটফর্মের নানান ছবি ও ওয়েব সিরিজের রিভিউ করে থাকেন তিনি। একপ্রকার গাঁয়ে মানে না আপনি মোড়লের মতোই তার রিভিউ শুরু হয়েছিল। তবে দিনে দিনে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন কেআরকে। সম্প্রতি বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্দেজকে (Jacqueline Fernandez) নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসেছেন কেআরকে।

সম্প্রতি সুকেশ চন্দ্রশেখরের সাথে জ্যাকলিনের ঘনিষ্ঠ ছবি ভাইরাল হবার পর থেকেই চর্চায় রয়েছেন অভিনেত্রী। ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা করেছেন সুকেশ। আর সেই সূত্রেই ইডির কাছে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হতে পারে জ্যাকলিনকে। অবশ্য শুধু জ্যাকলিন নয়, সুকেশ চন্দ্রশেখরের সাথে জনপ্রিয় অভিনেত্রী নোরা ফাতেহিরও নাম জড়িয়েছে।

Jacqueline Fernandez KRK

যেমনটা জানা যাচ্ছে জ্যাকলিন ও নোরা দুজনকেই ইডির তরফ থেকে ডাকা হয়েছে। তাদেরকে সুকেশ বেশ কিছু দামি উপহার দিয়েছেন। এমনি জ্যাকলিনের দেশের বাইরে যাওয়াতেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এসবের মাঝে জ্যাকলিনের সাথে বেডরুমে সুকেশের ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে আগুনের মত ছড়িয়ে পড়ে। যার ফলে অনেকের ধারণা টাকার লোভে হয়তো অভিনেত্রী সুকেশের সাথে সম্পর্কে ছিলেন।

এবার এই প্রসঙ্গে টুইট করে বিতর্কের আগুনে ঘি ঢালার কাজ করলেন কেআরকে। কেয়ারকে সুকেশ ও জ্যাকলিনের ঘনিষ্ঠ কিছু ছবি শেয়ার করে একটি টুইট করেছেন। আর সাথে লিখেছেন, এটা এই কথার প্রমাণ যে টাকার কত ক্ষমতা। আমি ঠিক তো ম্যাডাম জি!’সাথে ট্যাগ করেছেন জ্যাকলিনকে। কেয়ারকের এই টুইট ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

অবশ্য এখানেই শেষ হয়নি, এরপর আরো একটি টুইট করেন কেআরকে। দ্বিতীয় টুইট তিনি লেখেন, ‘এবার সময় এসেছে অশ্লীল জ্যাকলিন ফার্নান্দেজের রিভিউ করার। অভিনয় না জেনেও কিভাবে এতগুলো ছবি পেয়ে গেল সে? কত বড় গোল্ড ডিগার (টাকা লোভী) সে?’

এমনিতেই কেআরকে এর বিতর্কিত রিভিউ ও টুইট সর্বদাই চর্চার বিষয় হয়ে থাকে। তার মধ্যে এই নতুন টুইটগুলি আবারো বিতর্ক বাড়িয়ে তুলেছে নেটপাড়ায়। অনেকেই বিরূপ মন্তব্য করেছেন এই টুইটের জবাবে। তখন কেয়ারকে আরও জানিয়েছেন বড়সড় লোকের হাত রয়েছে তাই এখনও পর্যন্ত অ্যারেস্ট হয়নি।

Related Articles

Back to top button