গসিপবিনোদন

সলমনের হাতের বিখ্যাত নীল ফিরোজা পাথর বসানো ব্রেসলেট, এই কারণে কখনো খোলেন না অভিনেতা

দীর্ঘদিন ধরে ‘দাবাং খান’ অর্থাৎ সলমন খান (Salman khan) বলিউড কাঁপাচ্ছেন এবং আজও তিনি খুবই সক্রিয়। সম্প্রতি প্রকাশিত ছবি ‘রাধে: ইয়োর মোস্ট ওয়ান্টেড ভাই’ বেশ শিরোনাম করেছে। যদিও কিছু দর্শক এই ছবিটি মোটেই পছন্দ করেনি তবে এসত্ত্বেও, ছবিটি প্রথম দিনেই ভিউয়ের রেকর্ড ভেঙেছিল ওটিটি মঞ্চে। বহুপ্রতীক্ষিত এই ছবি প্রকাশের পর ওটিটি মঞ্চেও নিজের আধিপত্য বিস্তার করেছেন সলমন। তারপর কিছু মাসের মধ্যেই মুক্তি পায় সলমন এবং তার ভগ্নিপতি আয়ুষ শর্মার নতুন ছবি অন্তিম, যা বক্স অফিসে বেশ বাজার গরম করতে সক্ষম হয়েছে।

তবে আজকে ভাইজানের পেশাগত বিষয় নিয়ে কথা বলব না। এই প্রতিবেদনে জানাব, সলমনের সাথে সম্পর্কিত খুব কৌতুহল প্রবণ একটি তথ্য। যারা ভাইজানকে দেখেছেন, অবশ্যই লক্ষ করেছেন তার হাতের অতি বিখ্যাত এবং চিরপরিচিত ফিরোজা বা টার্কোয়াইজ পাথর বসানো ব্রেসলেট। এই ব্রেসলেটের নকলের বাজারে বিশাল চাহিদা।

এই ব্রেসলেট সম্পর্কেই সম্প্রতি একটি তথ্য সামনে এসেছে। একটি ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, এক ভদ্রমহিলা ভাইজানকে তার ব্রেসলেট সম্পর্কে প্রশ্ন করেছেন। তখন ভাইজান জানান এই ব্রেসলেটটি তার বাবা সেলিম খান তাকে দিয়েছিলেন। এই ব্রেসলেটের মধ্যমণি পাথরটি টার্কোয়াইজ বা ফিরোজা৷ ভাইজান মনে করেন, এটি তার সেভেন্থ স্টোন, তার সমস্ত সফলতার পিছনে রয়েছে এই পাথরটির অবদান।

এটি তার জন্য এতটাই লাকি যে অভিনয়ের সময়েও তিনি খোলেন না ব্রেসলেটটি। জানা যায়, সলমনের জীবনে যখন খুব খারাপ সময় চলছে তখন একজন নিউমেরোলজিস্ট এর শরণাপন্ন হন সেলিম খান। ওই ব্যক্তি নাকি একজন যোগীও ছিলেন। তিনি পাথরটি সলমনকে ব্রেসলেটের আকারে বাঁধিয়ে উপহার দেওয়ার পর থেকেই ভাইজানের ভাগ্য ফিরতে শুরু করে। তাইই কখনও এটি হাতছাড়া করেন না সলমন।

Related Articles

Back to top button