গসিপবিনোদনসিনেমা

চোখের চাহনিতে ফিদা হয়েছিলেন অভিনেত্রী, অনুপম-কিরণের প্রেমকাহিনীর কাছে ফেল বলিউডের সিনেমা

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ আজ, ১৪ জুন বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী কিরণ খেরের (Kirron Kher) জন্মদিন। ৬৭ বছরে পা দিলেন তিনি। নিজের কেরিয়ারে একাধিক ছবিতে বিভিন্ন জনপ্রিয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন কিরণ (Kirron Kher)। তা সে ‘দোস্তানা’য় অভিষেকের মায়ের চরিত্র হোক বা ‘ওম শান্তি ও’ শাহরুখের মায়ের চরিত্র। সাম্প্রতিক অতীতে বিভিন্ন রিয়্যালিটি শো’য়ে বিচারকের ভূমিকাতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে। তবে ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ার পর কাজ থেকে সাময়িক বিরতি নিয়েছেন অনুপম-পত্নী।

ফিল্মি দুনিয়ার এই বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত জীবনও কিন্তু কোনও বলিউড ছবির থেকে কম নয়। অনুপম খেরের (Anupam Kher) সঙ্গে কিরণের প্রেমকাহিনী যে কোনও বলিউড মুভিকে টেক্কা দিতে পারে। অনুপমের (Anupam Kher) সঙ্গে কিরণের (Kirron Kher) প্রথম আলাপ চণ্ডীগড়ে। থিয়েটার করার সূত্রে বন্ধুত্ব হয় দু’জনের। এরপর ধীরে ধীরে দু’জনের মধ্যে জন্ম নেয় ভালোবাসা। তবে ১৯৮০ সাল নাগাদ কিরণ চলচ্চিত্রে অভিনয় করার জন্য মুম্বই চলে আসায় সেই সম্পর্ক বেশি দূর এগোয়নি।

মুম্বই এসে কিরণের আলাপ হয় ব্যবসায়ী গৌতম বেরির (Gautam Berry) সঙ্গে। তাঁর সঙ্গেই গাঁটছড়া বাঁধেন কিরণ, জন্ম হয় পুত্র সিকন্দরের (Sikandar Kher)। এরপর অবশ্য সম্পর্ক শেষ করার সিদ্ধান্ত নেন দম্পতি। একইরকমভাবে অনুপমও নিজের বিবাহিত জীবনে সুখী ছিলেন না।

এরপর কলকাতায় থিয়েটার করতে এসে ফের দেখা হয় অনুপম-কিরণের। জেগে ওঠে পুরনো ভালোবাসা। সেই দিনের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে একবার কিরণ বলেছিলেন, ‘ওইদিন অনুপমের মধ্যে আলাদা একটা ব্যাপার ছিল। ও আমার ঘর থেকে বেরনোর সময় আমার দিকে এমনভাবে তাকিয়েছিল যে আমি সেই বিশেষ অনুভূতি বুঝতে পেরেছিলাম’।

Anupam Kher with Kiran Kher

এই ঘটনার পরেই অনুপম তাঁর পুরনো ভালোবাসার কাছে প্রেম নিবেদন করেন। একদিন হঠাৎ কিরণের বাড়ি গিয়ে অনুপম জানিয়ে দেন, ফের তাঁর প্রেমে পড়েছেন। সেই সময় দু’জনেই নিজেদের প্রথম বিয়ে থেকে বেরিয়ে এসেছিলেন। এরপর ১৯৮৫ সালে গাঁটছড়া বাঁধেন এই দুই প্রতিভাবান তারকা। কিরণের সঙ্গেই তাঁর পুত্র সিকন্দরকেও আপন করে নেন অনুপম।

অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতির ময়দানেও চেনা মুখ কিরণ (Kirron Kher)। বিজেপির (BJP) সাংসদ ছিলেন অনুপম-জায়া। অপরদিকে অনুপম নিজেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসক। বিভিন্ন সময়ে প্রধানমন্ত্রীর ভূয়সী প্রশংসা করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

Related Articles

Back to top button