বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

গল্পের কোনো মা বাপ নেই! খড়কুটো সিরিয়ালে অকৃতজ্ঞ তিন্নি কে দেখে ক্ষোভে ফুঁসছে নেট জনতা

সিরিয়াল মানেই সকলের অত্যন্ত পছন্দের একটি বিষয়। আর সিরিয়ালপ্রেমীদের কাছে বিপুল জনপ্রিয় এমনই একটি সিরিয়াল হল স্টার জলসার ‘খড়কুটো'(Khorkuto)। আর এই সিরিয়ালের সূত্র ধরেই দর্শকমহলে দারুন জনপ্রিয় মুখার্জী বাড়ির গুনগুন সৌজন্যের লাভ স্টোরি। সিরিয়ালে গুনগুনের চরিত্রে অভিনয় করছেন তৃণা সাহা (Trina Saha)এবং সৌজন্য চরিত্রে রয়েছেন কৌশিক রায় (Koushik Roy)।

সিরিয়ালের নায়ক নায়িকা দুজনেই একেবারে একে অপরের বিপরীত চরিত্রের। একদিকে সৌজন্য যখন ভীষণ সিরিয়াস গোছের বিজ্ঞানী অন্যদিকে গুনগুন তখন হাসি,মজা, আড্ডা, ইয়ার্কি নিয়ে থাকতে ভালোবাসা কলেজ পড়ুয়া এক প্রাণোচ্ছল মেয়ে। দুজনেই দিনের পর দিন নিজেদের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে মন জয় করে চলেছেন দর্শকদের।

তাই টিভির পর্দায় গুনগুন-সৌজন্যর রোম্যান্স দেখতে বসলে চোখ সরে না দর্শকদের। বিয়ের পর নানান ঝড় ঝাপ্টা পেরিয়ে সবেমাত্র জমিয়ে সংসার করছিল গুনগুন। সুযোগ পেলেই মাঝে মধ্যেই নিজের মিষ্টি বৌটাকে আদরে ভরিয়ে তুলছিল সৌজন্য। সবমিলিয়ে বেশ সুখে শান্তিতেই দিন কাটছিল সৌগুনের। কিন্তু এসবের মধ্যেই মুখার্জী বাড়িতে দুর্গাপুজো উপলক্ষে ধুমকেতুর মতো এসে হাজির হয়েছে তিন্নি। সৌজন্য কে ভালোবাসে সে।

কিন্তু দিনে দিনে সৌজন্যের প্রতি তিন্নির অবসেশন বেড়েই চলেছে। তাই সৌজন্যের বিয়ের পরেও তাকে ভুলতে পারছে না তিন্নি। ইতিমধ্যেই সিরিয়ালে দেখা গেছে মাঝরাতে সৌজন্যকে তিন্নি ফোন করে নিজের প্রাণ দিয়ে দেওয়ার কথা জানালে গুনগুন সৌজন্যকে তিন্নির কাছেই পাঠিয়ে দেয়। সম্প্রতি সিরিয়ালের একটি ফ্যান পেজের তরফে সিরিয়ালের একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে তিন্নির কাছে গিয়ে সৌজন্য গুনগুন কে ফোন করে।

 

ওদিকে গুনগুনের ঘরে তখন এসে দাঁড়িয়েছে পটকা সহ অনান্যরা। অন্যদিকে সৌজন্যের সামনে দাঁড়িয়ে তিন্নি সকলের নামে বিশেষ করে গুনগুনের নামে নানান মন্তব্য করতে শুরু করে। তখনই তাকে থামিয়ে দিয়ে সৌজন্য জানায় গুনগুনের প্রতি তিন্নির কৃতজ্ঞ থাকার কথা, তাই তাকে একটাও কথা বলতে বারণ করে দেয় সৌজন্য। এই ভিডিও দেখে ক্ষোভে ফেটে পড়েন নেটিজেনরা। বিরক্ত হয়ে একজন লিখেছেন ‘দেশের মাটি অকালে প্রাণ হারানোর পর এটাও খুব শিগগিরই যাবে, গল্পের কোনো মা বাপ নেই। ‘

Related Articles

Back to top button