বিনোদনসিরিয়াল

আরও কাছাকাছি এলো সৌগুন! এবার কেবল হাত নয় সৌজন্যের বুকে মাথা রাখলো গুনগুন

অন্যান্য সব ধারাবাহিককে টেক্কা দিয়ে এখন টিআরপি (TRP) শীর্ষে রয়েছে জনপ্রিয় সিরিয়াল খড়কুটো (Khorkuto)। ৭.৩০ টা বাজলেই প্রতিটা বাড়িতেই একই সঙ্গে শুরু হয়ে যায় এই সিরিয়াল দেখার ধুম। তার একটাই কারণ, এই ধারাবাহিকে কাহিনির নতুনত্ব, একান্নবর্তী পরিবারে মিলেমিশে থাকার মজা আর, সৌগুনের মিষ্টি প্রেম।

‘খড়কুটো’তে ছটফটে, মিষ্টি মেয়ে গুনগুনের চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী তৃনা সাহা (Trina Saha)। আর সৌজন্যের চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেতা কৌশিক রায় (Koushik Roy)। সিরিয়ালে গোমড়ামুখো সৌজন্যের সাথে বিয়ে হয়েছে গুনগুনের। বাবার কথায় মাত্র ৩৬৫ দিনের জন্য সৌজন্যকে বিয়ে করে শ্বশুর বাড়ি এসেছে গুনগুন। তারপর সে গ্র‍্যাজুয়েশনের পরীক্ষায় পাশ করে গেলেই ফের বাবার কাছে চলে যাবে এই ছিল শর্ত।

খড়কুটো গুনগুন সৌজন্য Gungun Soujony Trina Saha Koushik Roy

কিন্তু বিয়ের পর থেকেই সেই সব শর্ত যেন ক্রমেই উধাও হয়ে গিয়ে, সৌজন্য এবং গুনগুনের একে অপরের প্রতি তৈরি হচ্ছে অধিকারবোধ। দুজন দুজনকে চোখে হারাচ্ছে যেন। গুনগুন ঘুমোনোর সময় টেডিবিয়ারের বিকল্প হিসেবে সৌজন্যের হাত পেয়েই বেজায় খুশি। আর সৌজন্যরও গুনগুনের এই আবদার বেশ ভালো লাগতেই শুরু করেছে।

প্রথমের সেই খুনসুটি অপছন্দ যত দিন যাচ্ছে ততই যেন ভালোবাসায় পরিণত হয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি, পর্ব গুলিতে দেখা যাচ্ছে, গুনগুন বারে যাওয়ার নাম করে মিথ্যে বলে শ্বশুরবাড়ির ভালোর জন্যই তার বাবার কাছে যায়। কেননা সামনে পুটু পিসির বিয়ে আর তার জন্য গয়না লাগবে। কিন্তু আসল সত্যি না জেনে প্রথমে গুনগুনকে ভুল বোঝে সৌজন্য। পরবর্তীতে সত্যি জানতে পেরে গুনগুনের জন্য তার গর্বে প্রাণ ভরে যায়।

 

কিন্তু গুনগুন সৌজন্যর সাথে থাকতে নারাজ। আর তাইই গুনগুনকে কাছে টানতে নতুন ফন্দী আঁটে সৌজন্য, গুনগুনকে দেখায় ভুতের ভয়। আর তার জেরেই ভয় পেয়ে সমস্ত রাগ ভুলে সৌজন্যকে জাপটে ধরে ঘুমোয় গুনগুন। গুনগুন সৌজন্যকে ভয় পেয়ে জড়িয়ে ধরতেই সৌজন্য বলে ওঠে, “ঘুমোও কোনো চিন্তা নেই আমি আছি তোমার সাথে”।

Related Articles

Back to top button