বিনোদনভিডিওসিরিয়াল

পটকা, বাবিনের হাতে কিডন্যাপ হয়েছে গুনগুন! শশুরবাড়িতে এসেই ভ্যা ভ্যা করে জুড়েদিল কান্না

বাংলা বিনোদন জগতের অন্যতম অঙ্গ হল সিরিয়াল। তাই সন্ধ্যা নামার সাথে সাথেই সমস্ত কাজ সেরে হাতে টিভির রিমোট নিয়ে পরিবারের সবাই মিলে বসে পড়েন টিভির সামনে। দর্শকদের অত্যন্ত পছন্দের এমনই একটি জনপ্রিয় মেগা ধারাবাহিক হল স্টার জলসার খড়কুটো (Khorkuto)। হাসি-মজায় ভরপুর মুখার্জি পরিবারের যৌথ পারিবারিক সম্পর্কের প্রেক্ষাপটে গুনগুন-সৌজন্যের (Gungun-Soujanyo) খুনসুটি নিয়ে তৈরি হয়েছে এই সিরিয়াল।

তবে সিরিয়ালে বেশ কিছুদিন ধরে দেখা যায় গুনগুনের আচরণে তাঁর দিকে একের পর এক উঠতে শুরু করে দোষারোপের আঙুল। ঘটনার সূত্রপাত হয় বাড়ির নতুন সদস্য অর্থাৎ মিষ্টির সদ্যজাত কন্যা পুচু সোনাকে কেন্দ্র করে। গুনগুন পুচুসোনাকে এতটাই ভালোবেসে ফেলেছিল যে কোথাও গিয়ে মিষ্টির থেকেও বেশি অধিকারবোধ দেখিয়ে ফেলছিল সে। যা মা হয়ে মেনে নিতে পারছিল না মিষ্টি সহ বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা।

সকলেই গুনগুনকে কাঠগড়ায় তুলে দোষারোপ করতে শুরু করে। সেই কঠিন পরিস্থিতিতে গুনগুন তার পাশে পায়নি তার স্বামী সৌজন্যকেও। তাই মেয়ের অপমানের কথা জানতে পেরে গুনগুনকে চিরকালের জন্য মুখার্জী বাড়ি থেকে নিয়ে চলে আসে তার ড্যাডি। তবে গুনগুনের আচরণে বিরক্ত হলেও বাড়ির কেউই চাননি গুনগুন বাড়ি ছাড়া হোক।

এরপর গুনগুন কে বাড়ি ফিরিয়ে আনতে টিম পটকার সাথে মিলে তাকে কিডন্যাপ করার প্ল্যান করে সৌজন্য। ইতিমধ্যেই টিভিতে সম্প্রচারিত হয়েছে সেই পর্ব। যেখানে দেখা যায় রাতের অন্ধকারে অন্ধকারে ডাকাত সেজে নিজের বৌকেই কিডন্যাপ করছে সৌজন্য। যা দেখে বেজায় খুশি সৌগুন ভক্তরা। গুনগুন সৌজন্যকে আবার এক হতে দেখার অপেক্ষায় এখন থেকেই দিন গুনছেন তারা।

এসবের মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সিরিয়ালের ফ্যান পেজের তরফ থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে কালো টুপি দিয়ে মুখ ঢেকে দুহাত দড়ি দিয়ে বেঁধে গুনগুনকে কিডন্যাপ করে মুখার্জী বাড়িতেই নিয়ে আসা হয়েছে। পুরো ঘটনায় বড্ড ভয় গেছে গুনগুন। মুখ ঢাকা অবস্থাতেই কাঁদতে কাঁদতে সে বলতে থাকে ‘আমাকে ছেড়ে দাও আমি তো তোমাদের কোনো ক্ষতি করিনি, আমার ড্যাডি কষ্ট পাবে, আমার শ্বশুরবাড়ির লোক আমার ক্রেজি সবাই খুব কষ্ট পাবে।’

Related Articles

Back to top button