বিনোদনসিনেমা

বক্স অফিসে বাজিমাৎ KGF-2 এর! অথচ এই ৫ টি বড় বড় ভুল রয়ে গিয়েছে সিনেমায়, শুরু সমালোচনা

বক্স অফিসে সাউথ ইন্ডাস্ট্রির ছবি লাগাতার হিন্দোল তুলে চলেছে। ‘পুষ্পা : দ্য রাইজ’ এবং ‘আরআরআর’-এর পরে, এখন ‘কেজিএফ চ্যাপ্টার 2’ (KGF chapter 2), বক্স অফিসে রীতিমতো মুক্তির মাত্র দুদিনেই রীতিমতো ঝড় তুলেছে। ছবিতে সুপারস্টার যশকে (Yash) দেখা গিয়েছে মূল নায়কের চরিত্রে। সাথে খল নায়কের চরিত্রে ছিলেন সঞ্জয় দত্ত। সোনার খনির জন্য অসহায় সাধারণ মানুষের ওপর হওয়া অত্যাচার নিয়ে তৈরী ছবির কাহিনী।

২০১৮ সালে প্রথম চ্যাপ্টার মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই মানুষের মধ্যে উত্তেজনা ছিল বাঁধ ভাঙা। প্রথম পার্ট দেখবার পর থেকেই সকলে এর সিক্যুয়েলের অপেক্ষায় ছিলেন। আর সেই অপেক্ষার ফল মিঠেই হয়েছে। প্রত্যাশা মতোই বক্স অফিসে তুমুল সফক হয়েছে কেজিএফ চ্যাপ্টার ২। কিন্তু এত হিট ছবিতেও রয়ে গিয়েছে ৫ টি বড় বড় ভুল, যা ইতিমধ্যেই খুঁজে বের করে ফেলেছেন সিনে বোদ্ধারা৷

Yash KGF

মন দিয়ে না দেখলে এই ভুল চোখে পড়বেনা। কিন্তু এই ভুল গুলো জানলে আপনিও চমকে উঠতে বাধ্য। প্রথমত, ছবিতে এক ব্যক্তি থানায় দাঁড়িয়ে একের পর এক বুলেটের বাক্স পরিবর্তন করে বন্দুকের ট্রায়াল করছিল, কিন্তু একটি কার্তুজও বন্দুকে যায়নি। তাই নেটিজেনদের দাবি, খালি কার্তুজ কিভাবে বন্দুক থেকে পড়ছিল ?

এছাড়াও একাধিক দৃশ্যে দেখা গিয়েছে পুলিশের গাড়ি উড়ে উড়ে গিয়ে পড়ছে এদিক ওদিক। কিন্তু গাড়ির ভিতরের জিনিস এক্কেবারে স্থির, যা কার্যত অসম্ভব। এছাড়া একটি অ্যাকশন সিকোয়েন্সে দেখা যায় ভিলেনরা রকেট লঞ্চার নিয়ে মারামারি করছে, আগুন জ্বলছে চারদিকে। তবুও কোনোও ক্ষতি হয়নি তাদের।

এছাড়াও অধিরার ছোঁড়া গুলি রিনার লাগার কথা নয় বরং রকিরই লাগার কথা ছিল, কিন্তু অবাস্তবিকভাবে তা হয়নি, পাশাপাশি সর্বশেষে কেজিএফ থেকে সমস্ত সোনা নিয়ে মাঝ সমুদ্রে জাহাজে কিভাবে রকি পৌঁছাতে সক্ষম হলো সে প্রশ্নও তুলেছেন দর্শকরা৷ এই বড় বড় ভুল গুলিকে রীতিমতো

Related Articles

Back to top button