গসিপবিনোদনসিনেমা

দোষে গুনেই মানুষ ! দাঁত দিয়ে নখ কেটে খাওয়ার নোংরা বদভ্যাস আছে করিনা কাপুরের

আমাদের খুব প্রিয়, হিন্দি চলচ্চিত্র জগতের ডিভা কারিনা কাপুর খান (Kareena kapoor khan) গত কয়েক দশক ধরে দারুণ জনপ্রিয় সব ছবি উপহার দিয়ে আসছেন আমাদের। কারিনা হলেন এমন এক অভিনেত্রী যিনি বলিউডের বিবাহিত অভিনেত্রীদের দৃষ্টিভঙ্গি বদলেছেন এবং বারবার প্রমাণ করেছেন যে তিনি ইন্ডাস্ট্রির অবিসংবাদিত রানী। অভিষেক বচ্চনের বিপরীতে রিফিউজি দিয়ে বলিউডে আত্মপ্রকাশের পর থেকে কারিনা কাপুর খান বেশ কয়েকটি ব্লকবাস্টার চলচ্চিত্র দিয়েছেন এবং প্রমাণ করেছেন যে তাঁর অভিনয়ের দক্ষতা অতুলনীয়।

তার কৌতূহলময়, আকর্ষনীয় ব্যক্তিত্ব, দৃষ্টিনন্দন চেহারা, স্পষ্ট দৃষ্টিভঙ্গি, পাওয়ার হাউস পারফরম্যান্স, অন-পয়েন্ট ড্রেস সেন্স তাবড় তাবড় বলি অভিনেত্রীদের থেকে তাকে আলাদা করেছে। দুই পুত্রের মা হওয়ার পরেও তার সৌন্দর্যে বিন্দুমাত্র ভাটা পড়েনি। তবে এত ভালো গুনের পাশাপাশি করিনার একটি বদভ্যাস ও রয়েছে।

করিনা ক্ষেত্রে এটি হল নখ খাওয়া। আমাদের আশে পাশে এমন অনেকেই রয়েছে যাদের দেখা যায় দাঁত দিয়ে নখ কাটতে৷ কিন্তু বলিউডের বেবোর এহেন অভ্যেস আছে তা কখনো ভেবেছেন? অবিশ্বাস্য লাগছে তো? কিন্তু এটিই সত্যি। ফাঁকা বসে থাকলেই মুখে হাত চলে যায় বেবোর আর তিনি নখ কামড়াতে থাকেন।

প্রসঙ্গত, চলতি ২১শে ফেব্রুয়ারীর সকালে নবাব পরিবারে ফের জন্ম নিয়েছে নবাব পুত্তুর। দ্বিতীয় বারেও পুত্র সন্তানের মা হয়েছেন করিনা কাপুর। মুম্বইয়ের ব্রিজ ক্যান্ডি হাসপাতালে ফুটফুটে পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছিলেন অভিনেত্রী৷ তারপর থেকেই তাকে একঝলক দেখার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছিল গোটা নেটপাড়া। আন্তর্জাতিক নারী দিবসে দ্বিতীয় বার নিজের মাতৃত্বের স্বাদ পাওয়ার আনন্দ সকলের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী নিজেই। কিন্তু কোনো ভাবেই সন্তানের মুখ প্রকাশ্যে আনেননি তারা।

এদিকে, করিনার লেখা একটি বই প্রকাশ পাবে খুব শীঘ্রই। নাম ‘Pregnancy Bible’। যেখানে তার দুবার অন্তঃসত্তা কালের অভিজ্ঞতা বর্ণিত থাকবে। হবু মায়েদের জন্য লেখা এই বই নিয়ে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে তুমুল চর্চা। এই বই নিয়ে কৌতূহল আরও কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে বইয়ের ভিতরের একটি ছবি। ছবিতে করিনা যে শিশুর কপালে চুম্বন করছেন, সে-ই করিনা এবং সইফের দ্বিতীয় সন্তান। আর অনেকেই মনে করছেন এটিই জেহ। খুদেকে আদরে ভরিয়ে দিয়েছেন নেটিজেনরাও। কিন্তু এই শিশুই করিনার কনিষ্ঠ পুত্র কিনা, সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত ভাবে কিছু জানা যায়নি।

Related Articles

Back to top button