গসিপবিনোদন

একটা সময় গাড়ি থাকলেও ড্রাইভার রাখার টাকা ছিল না, অকপট করিনা

বলিউড ডিভা করিনা কাপুর খান (Kareena Kapoor Khan) । অর্থাৎ জন্মসূত্রে একদিকে জনপ্রিয় কাপুর খানদানের মেয়ে অন্যদিকে ঐতিহ্যবাহী পটৌডি পরিবারের বৌমা।তাই আপাতদৃষ্টিতে  তাঁর বলিউড যাত্রার পথটা বেশ মসৃণ মনে হলেও আদতে তা নয়। বরং একেবারে উল্টো। করিনা কাপুরের মা ববিতা কাপুর(Babita Kapoor) সিঙ্গেল মাদার। তাই কাপুর পরিবারের বাকি সন্তানদের মতো বিলাসবহুল জীবন নয় বরং আর পাঁচজন সাধারণ পরিবারের সন্তানদের মতোই ছোটো থেকেই কঠিন বাস্তবের সম্মুখীন হয়ে আজকের এই জায়গা টা অর্জন করেছেন বলিউডের দুই জনপ্রিয় অভিনেত্রী করিশ্মা (Karishma)এবং করিনা(Kareena)।

এ প্রসঙ্গে একবার সাক্ষাৎকারে করিনা জানিয়েছিলেন  “কাপুর পরিবারের সন্তান মানেই সবাই যে ধরনের বিলাসবহুল জীবনযাপন করার ধারণা করে তাকে  আমরা সেভাবে বড় হয়ে উঠিনি।তবুও আমার মা এবং দিদি সবসময়ই আমাকে  উন্নত জীবন দেওয়ার জন্য অনেক  লড়াই করেছিলেন। বিশেষত আমার মা, কারণ তিনি ছিলেন একজন সিঙ্গেল মাদার। তাই আমাদের জন্য সবকিছু খুব সীমিত ছিল। “

সেইসাথে করিনা আরও জানান “লোলো(করিশ্মা) লোকাল ট্রেনে কলেজে যাতায়াত করত, কিন্তু আমাকে তা করতে হয়নি।তখন আমাদের একটি গাড়ি ছিল কিন্তু গাড়ির ড্রাইভারের জন্য পর্যাপ্ত টাকা ছিল না।তবে অতীতের ওই কষ্টগুলোই আমাকে আরও শক্তিশালী করেছে। আমার মনে হয়, আমি পৃথিবীতে যেকোনও কিছুর জন্য এখন প্রস্তুত।”

আজ কারিনা শুধু বলিউডের প্রতিষ্ঠিত অভিনেত্রীই নন। দুই সন্তানের জননীও তিনি। এই বছরের শুরুর দিকেই তাঁদের পরিবারে নতুন সদস্যের আগমন ঘটেছে।উল্লেখ্য শুরু থেকেই করিনা বিশ্বাস করেন অভিনেতা বা অভিনেত্রীরা সবার জীবনেই খবু গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন। অনেকের কাছেই রোল মডেল। তাই তাঁদের এমন কিছু করা উচিত যাতে  সবার কাছে সঠিক বার্তা পৌঁছয়।

kareena Kapoor কারিনা কাপুর

তাই তিনি বিভিন্ন সময়ে তিনি  নিজের মতো করে জীবন উপভোগ করছেন।কখনও প্রেগন্যান্সির পর বেবি বাম্প নিয়ে তিনি সর্বসমক্ষে এসে ব়্যাম্প ওয়াক করেছেন। আবার  গর্ভাবস্থাতেও কাজ করেছেন এমনকী প্রথম সন্তান তৈমুরের জন্মের পরও তিনি কাজ করে গিয়েছেন। আর যেভাবে তিনি ব্যাক্তিগত এবং পেশাগত জীবন ব্যালেন্স করে চলেন তা অসংখ্য মহিলাদের অনুপ্রেরণা জোগাবে বলে মনে করেন তিনি।

Related Articles

Back to top button