বিনোদন

ডুবে ডুবে জল খেয়েছিলেন কঙ্গনার বাবা-মা! এতদিনের সিক্রেট ফাঁস করলেন বলি ক্যুইন

সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই কঙ্গনা রানাউত (Kangna Ranaut) মানেই যেন বিতর্কের ঝড়। কঙ্গনা মানেই যেন কাঠিন্যে ভরপুর এক তেজী মহিলা। কিন্তু এত সবের বাইরে কঙ্গনা ভীষণই পরিবারপ্রেমীও৷ বাবা মা দিদি পরিবার বলতে সে অন্ধ।

এদিন ১৯ শে এপ্রিল বলি ক্যুইনের বাবা মায়ের বিবাহ বার্ষিকী ছিল, সেই উদযাপন করতে গিয়েই একটি সিক্রেট ফাঁস করলেন বলি ক্যুইন। এক্কেবারে বাবা মা অর্থাৎ অমরদীপ রানাউত আর আশা রানাউতের সম্পর্ক নিয়ে হাটে হাঁড়ি ভেঙে দিলেন কঙ্গনা। জানালেন, প্রথম থেকে দুজনেই বলে এসেছেন তাঁদের নাকি দেখাশোনা করে বিয়ে, মানে অ্যারেঞ্জড ম্যারেজ, কিন্তু সত্যিটা এক্কেবারেই অন্য।

ঠাকুমার মুখেই অভিনেত্রী জানতে পেরেছেন, আসলে ভালোবাসেই বিয়ে করেছিলেন তারা। ‘লাভস্টোরি’ শেয়ার করে কঙ্গনা জানালেন আশা-অমরদীপের এক হওয়ার কাহিনি।

https://twitter.com/KanganaTeam/status/1384006979463434243?ref_

কঙ্গনা সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, ”আজ আমার বাবা-মায়ের বিবাহবার্ষিকী। ছোট থেকেই তাঁরা গল্প বলে আসছেন, তাঁদের নাকি চিরাচরিত অ্যারেঞ্জড ম্যারেজ! কিন্তু আসল গল্পটা মোটেও তা না! পরে তো নানি আমায় আসল ঘটনা বললেন! বাবা-মার দুর্দান্ত প্রেমকাহিনী…কলেজ থেকে ফেরার পথে বাবা প্রথম বাস-স্ট্যান্ডে মা-কে দেখেন। প্রথম দেখাতেই প্রেম! এরপর থেকে বাবা রোজ সেই বাসটাতেই উঠতেন, যেটা করে মা যেতেন, যতক্ষণ না মা তাঁর দিকে তাকিয়েছিলেন।”

বাবা-মার মিষ্টি প্রেমকাহিনি বর্ণনা করে কঙ্গনা আরও লেখেন, ”বাবা যখন দাদুর কাছে মাকে বিয়ে করার জন্য প্রস্তাব নিয়ে গিয়েছিলেন, দাদু তো সোজা নাকচ করে দেন, কারণ, বাবার খুব একটা সুনাম ছিল না। দাদু মা ওরফে আদরের গুড্ডির জন্য এক সরকারি চাকুরে পাত্র দেখেছিলেন। কিন্তু মা লড়াই ছেড়ে থেমে যাননি! সব বাঁধা অতিক্রম করে, দাদুকে বিয়েতে রাজি করিয়েছিলেন।’

Related Articles

Back to top button