খবরবিনোদন

মুম্বাই পুলিশের রাষ্ট্রদ্রোহের মামলা কঙ্গনা রানাউত ও রঙ্গোলি চান্ডেলের বিরুদ্ধে! আগামী সপ্তাহে দিতে হবে হাজিরা

বলিউড অভিনেত্রী  কঙ্গনা রানাউতের তীব্র মন্বব্যের জেরে ঝামেলা বেড়েই চলেছে। ঝাঁসীর রানীর এই অভিনেত্রী প্রায়ই সাহসী মন্তব্যের জেরে যেমন সংবাদ মাধ্যমের চর্চায় আসছেন তেমনি বিভিন্ন সময়ে নানান বিতর্কের মধ্যেও পড়েছেন অভিনেত্রী। তবে, অভিনেত্রী সমালোচনা ও চর্চার তেমন ধার ধরেন না তার যেটা সঠিক মনে হয়  সেটা অকপটে স্বীকার করেন সকলের সামনে। বহুবার তাকে এরকম সাহসী মন্তব্য করতে দেখা গেছে। বলিউড অভিনেতা সুশান্তের মৃত্যুর পরেও অভিনেত্রী বিস্ফোরক মন্তব্য করেছিলেন বলিউডে নেপোটিজম নিয়ে।

আবারো একবার সমালোচনার মুখে এসে দাঁড়ালেন অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। সোশ্যাল মিডিয়াতে সাম্প্রদায়িক বিদ্বেষ মূলক পোস্ট শেয়ার করার পর অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত ও তার বোন রঙ্গোলি চান্ডেলের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছে মুম্বাই পালিশ। যার ফলে অভিনেত্রী ও তার বোন বর্তমানে আইনি সমস্যার সম্মুখীন। যেমনটা জানা যাচ্ছে, বান্দ্রার ম্যাজিস্ট্রেট মেট্রোপলিটন কোর্ট মুম্বাই পুলিশকে এই এফআইআর দায়ের করতে নির্দের্শ দিয়েছিল।

শেষ পাওয়া তথ্যানুযায়ী, কঙ্গনা ও রঙ্গোলির বিরুদ্ধে মুম্বাই পুলিশের দায়ের করা মামলায় উভয়কেই তলব করেছে মুম্বাই পুলিশ। কঙ্গনার ও তার বোনের বিরুদ্ধে ১২৪ এ রাষ্ট্রদ্রোহী সোহো আরো অনেক ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সংবাদ মাধ্যম সংস্থার এএনআইএর মতে, অভিনেত্রী ও তার বোনকে সম্ভবত আগামী সপ্তাহেই মামলার তদন্তকরি অফিসারদের কাছে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে। আগামী সপ্তাহে সোম ও মঙ্গল বার ( ২৬ শে অক্টোবর ও ২৭ শে অক্টোবর ) তদন্তের জন্য হাজিরা দিতে হবে দুজনকে।

 

 

প্রসঙ্গত, এর আগে কঙ্গনা ভাইয়ের বিয়ের দিন তার বিরুদ্ধে হওয়া মামলার বিষয়ে টুইট করেন। টুইটে অভিনেত্রী বলেছেন “মহারাষ্ট্র সরকার আমায় নিয়ে অবসন্ন। আমায় এতো মিস করার দরকার নেই আমি শীঘ্রই ফিরছি সেখানে। “

Related Articles

Back to top button