বিনোদনসিনেমা

টুইটারের পর ইনস্টাগ্রাম! এবার ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সাথে তুলনা টেনে ক্ষোভ প্রকাশ কঙ্গনার

সামাজিক হোক বা রাজনৈতিক যে কোনো বিষয়েই বিতর্কিত মন্তব্য করে একাধিকবার শিরোনামে এসেছেন বলিউড ক্যুইন কঙ্গনা রানাউত (Kangana Ranaut)। বারবার বিতর্কে জড়িয়ে পড়ার কারণে নিন্দুকরা আড়ালে তাঁকে ‘কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন’ বলেও আখ্যা দিয়ে থাকেন। উস্কানিমূলক মন্তব্য করার জেরে ইতিমধ্যেই তাঁর টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্যান করেছেন কতৃপক্ষ।

অনেক দিন আগেই টুইটার কতৃপক্ষ ব্যান করেছে কঙ্গনা কে। তাই সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামেই পরিচালক এ. এল. বিজয় পরিচলিত আসন্ন আইকনিক ছবি ‘থালাইভি’ ছবির রোমান্টিক গান ‘তেরি আঁখো মে কেয়া হ্যায়’-এর ছোট্ট একটি টীজার শেয়ার করেছিলেন কঙ্গনা। এগিয়ে আসছে ছবি মুক্তির দিনও। তাই ১০ সেপ্টেম্বর ছবি মুক্তির আগে সিনেমার ট্রেলার দর্শকদের সাথে ভাগ করে নিতে চেয়েছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু এবার বাধ সাধলো ইনস্টাগ্রাম।

তাই আজ ইনস্টাগ্রাম কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে নিজের স্টোরিতে একটি দীর্ঘ বার্তা দিয়েছেন কঙ্গনা। এদিন নিজের ইনস্টা স্টোরিতে অভিনেত্রী ইনস্টাগ্রাম কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে চরম অপেশাদারিত্বের অভিযোগ তুলেছেন। এদিন ইনস্টাগ্রামের নিন্দা করে তিনি বলেন ‘আপনারা ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মনোভাব পরিবর্তন করুন।

ইনস্টাগ্রাম কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে লেখা দীর্ঘ বার্তার শুরুতেই কঙ্গনা লিখেছেন ‘প্রিয় ইন্সটাগ্রাম আমার প্রোফাইলে আমার ফিল্ম ট্রেলার লিঙ্ক যোগ করতে গেলেই আমাকে বলা হচ্ছে আমার প্রোফাইলটি যাচাই করে দেখা হয়েছে । তাই আমি এখন এটির মালিক। অথচ বহু বছর ধরে আমি আমার এই প্রোফাইলটি ব্যবহার করছি, এবং আজকের জায়গাটা উপার্জন করেছি এবং তৈরি করেছি। কিন্তু ইনস্টাতে এখন আমার নিজের নাম বা প্রোফাইলে কিছু যোগ করতে গেলেও আমার অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন হচ্ছে। ‘

এরপরেই ইনস্টাগ্রাম কতৃপক্ষের ওপর ফের একবার ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি বলেন ‘ভারতে আপনার টীম আমাকে বলেছে যে তাদের তাদের আন্তর্জাতিক কর্তাদের অনুমতি নেওয়া প্রয়োজন। এক সপ্তাহ হয়ে গেল, তারপরেও মনে হচ্ছে একদল সাদা মূর্খের দাস। আপনার ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির মনোভাব পরিবর্তন করুন।’ এছাড়াও এদিন কঙ্গনার অভিযোগ তাঁর আসন্ন সিনেমা থলাইভির প্রমোশনের জন্য ইনস্টাগ্রামে নিজের নামের সাথে ‘থালাইভি’ কথাটি যুক্ত গেলে, তখন থেকে তাঁর অ্যাকাউন্টের সম্পাদনা বিভাগটি লক করে দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button