বিনোদনসিনেমা

বাজি পোড়ানো বন্ধ করার চেয়ে পায়ে হেঁটে অফিস যাওয়া ভালো! সমাজকর্মীদের উপদেশ দিলেন কঙ্গনা

সামাজিক হোক বা রাজনৈতিক যে কোনো বিষয়েই বিতর্কিত মন্তব্য করে একাধিকবার শিরোনামে এসেছেন বলিউড ক্যুইন কঙ্গনা রানাওয়াত (Kangana Ranaut)। বারবার বিতর্কে জড়িয়ে পড়ার কারণে নিন্দুকরা আড়ালে তাঁকে ‘কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন’ বলেও আখ্যা দিয়ে থাকেন। বারবার বিতর্কিত বিষয়ে প্রতিবাদ জানাতে গিয়েই নানান ঝামেলায় জড়িয়ে পড়েন এই বলি অভিনেত্রী।

উল্লেখ্য রাত পেরোলেই আগামীকাল দিওয়ালি অর্থাৎ আলোর উৎসব। আলোর রোশনাইয়ের সাথে সাথেই প্রতিবছর দিওয়ালি নিয়ে আসে বাজির শব্দ। আর এখানেই এবছর আপত্তি তুলেছেন পরিবেশ সচেতন বেশ কয়েকজন সমাজকর্মী। দিওয়ালিতে বাজি নিষিদ্ধ করবার জন্য চারদিকে জোর সওয়াল করছেন সমাজকর্মীরা। আর তাই দিওয়ালির আগে বাজির উপর নিষেধাজ্ঞা জারি নিয়ে চারদিকে চলছে নানা তর্ক বিতর্ক।

এ প্রসঙ্গে এবার বাজি পোড়ানো নিয়ে সমাজকর্মীদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন ‘কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন’ কঙ্গনা রানাওয়াত। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে সদগুরুর একটি ভিডিয়ো শেয়ার করেছেন কঙ্গনা। সেই ভিডিয়োতে সদগুরুকে নিজের ছেলেবেলার দীপাবলির স্মৃতি রোমন্থন করতে দেখা গিয়েছে। তিনি বলেছেন কেমনভাবে মাস কয়েক আগে থেকেই বাজি ফাটানোর জন্য উত্তেজিত থাকতেন তিনি, এবং দিওয়ালি মিটলেও কিছু বাজি বাঁচিয়ে রাখতেন পরবর্তী সময়ের জন্য।

 

সেই ভিডিওটির নীচেই কঙ্গনা মন্তব্য লিখেছেন, ‘ইনি সেই মানুষ যিনি বিশ্ব রেকর্ড গড়েছেন কয়েক লক্ষ গাছ লাগিয়ে’। পাশেই অপর একটি ইনস্টা স্টোরিতে বাজি নিষিদ্ধ করার দাবি তোলা সমাজকর্মীদের উদ্দেশ্যে অভিনেত্রীর পরামর্শ, ‘এটা একদম যথার্থ উত্তর সেই সব পরিবেশকর্মীদের। আপনারা হেঁটে অফিস যান, তিন দিন গাড়ির ব্যবহার বন্ধ রাখুন।’

উল্লেখ্য বলিউডের খ্যাতনামা প্রযোজক তথা সোনম কাপুরের বোন রিয়া কাপুর সদ্যই বাজি পোড়ানোর এই বিষয়ে দুঃখপ্রকাশ করেছেন। তাঁর চোখে এটি খুব ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং অনুচিত কাজ’। অন্যদিকে মুম্বইয়ের নগরপাল কিশোরি পেদনেকর মুম্বইবাসীদের কাছে দিওয়ালিতে শব্দদূষণ এবং বায়ুদূষণ নিয়ন্ত্রণের আবেদন জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button