খবরবিনোদনসিনেমা

সিনেমা ফ্লপ হয়েছে আমি না, ১০০ কোটি ডুবিয়েও বড় গলা করে নিজের গুণ গাইলেন কঙ্গনা!

বলিউডের অভিনেত্রীদের মাঝে মধ্যেই শিরোনাম আসতে দেখা যায়, তবে কঙ্গনা রানাউত নামটা কিন্তু প্রায় কমন বলা যেতে পারে। কেন? কারণ হামেশাই কোনো না কোনো কারণে সংবাদ মাধ্যমের শিরোনামে থাকেন কঙ্গনা। কখনো বিতর্কিত মন্তব্য তো কখনো নিজের ছবি বা শোয়ের জেরে শিরোনামে থাকাটা যেন হ্যাবিট হয়ে গিয়েছে অভিনেত্রীর। এই যেমন বর্তমানে বিগ বাজেট ছবি ফ্লপ করে চর্চায় রয়েছেন কঙ্গনা।

কিছুদিন আগেই মুক্তি পেয়েছে কঙ্গনার ছবি ‘ধাকড়’। রিলিজের আগে বিশাল হম্বিতম্বি করলেও শেষ মেশ বক্স অফিসে একেবারে মুখ থুবড়ে পড়েছে কঙ্গনার এই ছবি। আসলে এমনিতেই দক্ষিণী ছবির ভিড়ে ধোপে টিকছিল না, তবে বলিউডের এই ছবি নিয়ে বেশ আশাবাদী ছিলেন অভিনেত্রী। এদিকে ২০ মে মুক্তির পর থেকেই যেন উল্টোটাই দেখা যায়। শুরু থেকেই কার্তিক আরিয়ানের ভুল ভুলাইয়া ২ টেক্কা দেয় কঙ্গনার ‘ধাকড়’ ছবিকে।

৯৫ কোটি টাকা বাজেটে তৈরী ছবিটি খুব বাজে ভাবেই ফ্লপ করেছে বলা যেতে পারে। কারণ ছবি রিলিজের মাত্র ৮ দিনের মাথায় সারা দেশ জুড়ে  ছবির টিকিট বিকিয়েছে মাত্র ২০ টি আর আয় হয়েছিল ৪৪২০ টাকা। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই হাসির রোল উঠেছিল নেটপাড়ায়। ছবি ফ্লপ হওয়ার জেরে ব্যাপক কটাক্ষের শিকার হতে হয়েছিল অভিনেত্রীকে।

তবে সম্প্রতি ছবি ফ্লপ হওয়া নিয়ে মুখ খুলেছেন কঙ্গনা। ইন্সটাগ্রাম স্টোরিতে কঙ্গনার সোজা মন্তব্য ছবি ফ্লপ হয়েছে আমি নই। আমি আগেও হিট ছিলাম আর হিটই থাকবো। তাই আগামী ছবি নিয়ে বেশ উত্তেজিত ও আশাবাদী দিনই। অন্তত এমনটাই বোঝা যাচ্ছে তাঁর ইনস্টাগ্রাম স্টোরি থেকে।

Kangana Rakangana ranaut opens up after dhakad movie flopped badlynaut opens up after Dhaakad flops bashes on trollers

এদিন যে ছবিটি শেয়ার করেছিলেন কঙ্গনা তাতে নিজের পুরোনো সুপারহিট ছবির নাম ও বক্স অফিস কালেকশন উল্লেখ করেছেন কঙ্গনা। যেখানে ২০১৯-এ ‘মণিকর্নিকা’ ছবির ১৬০ কোটি থেকে ২০২১ সালের জয় ললিতার জীবনী নিয়ে তৈরী ছবি ‘থালাইভি’ এর বিশাল সাফল্যের কথা জানিয়েছেন তিনি। এছাড়াও নিজের রিয়্যালিটি শো লকআপ যে ওটিটি প্ল্যাটফর্মে সুপারহিট হয়েছিল সেই নিয়েও বার্তা দেন কঙ্গনা।

Related Articles

Back to top button