বিনোদনসিনেমা

আঞ্চলিক দলাদলি বেকার, আমি একজন ভারতীয় অভিনেতা, সাউথ-বলিউড বিতর্কে বিস্ফোরক কামাল হাসান

দেশব্যাপী অব্যাহত দক্ষিণী সিনেমার দাপট। আর সাউথের সিনেমার এই আকাশছোঁয়া সাফল্যের ফলে এখন স্বভাবতই বাজার গরম দক্ষিণী সুপারস্টারদের।একের পর এক ব্লকবাস্টার হিট সিনেমা উপহার দিয়ে এখন গোটা দেশের সিনেমা প্রেমীদের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে দক্ষিণী সিনেমা (South Indian Film)-র অভিনেতা অভিনেত্রীরা।

এরইমধ্যে শুরু হয়েছে বলিউড (Bollywood) বনাম দক্ষিণী সিনেমার ভক্তদের ভার্চুয়াল লড়াই। কারণ একদিকে যখন একের পর এক দক্ষিণী সিনেমা বক্স অফিসে চুটিয়ে ব্যাবসা করছে অন্যদিকে তখন বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়ছে বলিউড সিনেমা। কিছুদিন আগেই এই বিতর্কের আগুনে কার্যত ঘি ঢেলেছেন বলিউড অভিনেতা অজয় দেবগন (Ajay Devgan) এবং দক্ষিণী সুপারস্টার কিচ্চা সুদীপের (Kicha Sudeep) মধ্যে হিন্দি ভাষা নিয়ে তৈরি হওয়া বাকবিতন্ডা।

কীছুদিন আগেই এপ্রসঙ্গে বিতর্কিত মন্তব্য করে কার্যত বোমা ফাটিয়ে ছিলেন দক্ষিণী তারকা মহেশ বাবু (Mahesh Babu)। বলিউডে অভিনয় করার প্রসঙ্গে বিস্ফোরক মন্তব্য করে অভিনেতা বলেছিলেন ‘বলিউডের আমাকে দিয়ে কাজ করানোর ক্ষমতা নেই। সেই জন্যই আমি সময় নষ্টও করতে চাই না’। বলিউড নিয়ে অভিনেতার এই বিরূপ মন্তব্য রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছে চারদিকে।

এপ্রসঙ্গে ইতিমধ্যে বিস্তর জলঘোলা হয়েছে। সম্প্রতি এপ্রসঙ্গে নীরবতা ভেঙে ছিলেন সাউথ তথা বলিউডের জনপ্রিয় তারকা অভিনেতা কমল হাসান (Kamal Hasan)। ‘চাচি ৪২০’ খ্যাত এই বর্ষীয়ান অভিনেতা সৃষ্টিশীল ভাবনার কথা বলে জানিয়েছেন, “ওসব উত্তর-দক্ষিণ বুঝি না, আমি একজন ভারতীয় অভিনেতা। ”

সেইসাথে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে অভিনেতা বলেছেন “আঞ্চলিক দলাদলির অর্থ কী?” অভিনেতার কথায় আন্তর্জাতিক স্তরে খ্যাতি অর্জন করাই ভারতীয় সিনেমার একমাত্র লক্ষ্য হওয়া উচিত। সেই সাথে অভিনেতার আরও সংযোজন “হিন্দি হোক বা ইংরেজি, চলচ্চিত্রের ভাষা চলচ্চিত্রই।” তাই উভয় ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা অভিনেত্রীদেরই কমল হাসানের পরামর্শ “সম্পদ আমাদের কম নেই। ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করলে তবেই আমরা উন্নতির শিখরে পৌঁছব।”

Related Articles

Back to top button