রেসিপি

জন্মাষ্টমীতে বাঙালি ঘরে তালের বড়া না হলে হয়! রইল সহজ রেসিপি

এখন তালের মরসুম। রোজই বাজারে উঠছে পাকা তাল। আর বাঙালির সঙ্গে তালের সম্পর্ক চিরন্তন। এই তাল পাকার সময়ই বাঙালির প্রিয় দেবতা শ্রী কৃষ্ণের জন্মদিন। আর জন্মাষ্টমীতে ঘরের গোপালকে তালের বড়া খাওয়াবে না এমন পরিবার বোধ হয় নেই। চলতি মাসের ৩০ তারিখ জন্মাষ্টমী।আর তার তোরজোর এখন থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে। যেসব বাড়িতে ঐদিন কৃষ্ণপূজা হয়, তারা আগেভাগেই শুরু করে দেয় ভোগ বানানোর প্রস্তুতি।

আর এই ভোগের আবশ্যিক একটি পদ হল তালের বড়া। শুধু কৃষ্ণ কেন? মা ঠাকুমাদের হাতের সুস্বাদু তালের বড়া খেতে মুখিয়ে থাকে বাড়ির প্রতিটি সদস্যই। এই সময়টা ছাড়া পাকা তাল বিশেষ মেলেনা, তাই সুযোগ হাতছাড়া করার কোনো প্রশ্নই নেই। তাই আজ বংট্রেন্ডের রান্নাঘরে বানানো তালের বড়ার রেসিপি ভাগ করে নিতে চাই আপনাদের সাথেও।

তালের বড়ার উপকরণ –

১. খেজুর গুড় আধ কাপ

২. চালের গুঁড়ো ১ টেবিল চামচ

৩. ময়দা আধ কাপ

৪. তালের রস এক কাপ

৫. নারকেল কোড়ানো আধা কাপ

৬. গুঁড়া দুধ আধা কাপ

৭. লবণ স্বাদমতো

৮. সাদা তেল পরিমাণমতো

৯. চিনি বেশ খানিকটা

তালের বড়া বানানোর পদ্ধতি-

প্রথমে একটি বড় ছড়ানো পাত্রে খেজুরের গুড়, চালের গুঁড়ো, ময়দা, লবণ, চিনি, গুঁড়ো দুধ ও তালের রস দিয়ে ভালোভাবে ঘন করে মাখিয়ে একটি ব্যাটার তৈরি করে নিন।

মনে রাখতে হবে এই মিশ্রণটি যেন খুব পাতলা বা খুব ঘন না হয়ে যায়। যেন দলা পাকিয়ে না থাকে। একেবারে মসৃণ করে বেটার তৈরি করুন।

এরপর কড়াইতে সাদা তেল গরম করুন। বেটার হাতে নিয়ে বড়ার আকারে গরম তেলে ছেড়ে দিন। হালকা আঁচে বড়াগুলো ভাজতে হবে।

বড়া গুলো লালচে লালচে হয়ে এলেই তেল থেকে ছেঁকে তুলে পরিবেশন করুন। ঠাকুরকে দিয়ে টপাটপ মুখে পুড়ুন তালের বড়া।

Related Articles

Back to top button