বিনোদনসিনেমা

বিরাট অপমান! সৃজিতকে মুখের উপর ‘না’ বলে, রানী মুখার্জির বর আদিত্যর ছবি করছেন যীশু সেনগুপ্ত

বাংলা ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা হলেন যীশু সেনগুপ্ত। তবে টলিউড নয়,তার অভিনয় গুণে মুগ্ধ বলিউড ইন্ডাস্ট্রিও। তবে শুধু অভিনয় নয়, অভিনয়ের পাশাপাশি একাধিক রিয়ালিটি শোয়ের সঞ্চালনাও করেন যীশু। তবে সম্প্রতি বাংলার খ্যাতনামা পরিচালক সৃজিত মুখার্জীর সাথে রেষারেষির ঘটনাকে কেন্দ্র করে শিরোনামে এসেছেন অভিনেতা।

জানা যায় ‘লহ গৌরাঙ্গের নাম’ ছবির সময় থেকেই সৃজিত-যিশুর সম্পর্কে চীড় ধরে। সেসময় সৃজিতের ছবির জন্য তিনি সময় বার করতে পারেননি।তাতেই যীশুর ওপর অভিমান হয়েছিল সৃজিতের। এ প্রসঙ্গে এক সংবাদমাধ্যমের কাছে অভিনেতা বলেছেন ‘সৃজিতের একটা অভিমান ছিল আমার প্রতি। তার পরে ও যা বলার বলেছে। সৃজিতের অনেক সাক্ষাৎকার হয়েছে তার পরে।’


অভিযোগ ওঠে, যিশুকে চৈতন‍্যর চরিত্রে অভিনয়ের অফার দিয়েও পরে আর ডাকা হয়নি তাঁকে। তবে পরে নাকি একাধিক সাক্ষাৎকারে সৃজিত জানিয়েছিলেন ‘চৈতন্য’ হিসাবে তিনি সৃজিতের প্রথম পছন্দ ছিলেন না। এ প্রসঙ্গে যীশু জানিয়েছেন তার কাছে সৃজিত মুখার্জী জানিয়েছিলেন তিনি এ রকম কিছু বলেনি। যীশুর কথায় ‘কথাটা সত্যি। সৃজিত কিন্তু সত্যিই আমাকে চৈতন্যের চরিত্রে অভিনয় করতে বলেনি।’

আগের থেকে তাদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি অনেক টাই মিটেছে। তবে এ প্রসঙ্গে যীশু বলেছেন ‘আমরা খুব ভাল বন্ধু। তাই আমাদের মধ্যে ঝামেলাটাও চলে।আস্তে আস্তে সব ঠিক হয়ে যায়। তবে আমি একটা কথাই বলব। আমি ক্ষমা করে দিই ঠিকই। কিন্তু কিছুই ভুলি না।’ সেইসাথে যিশুর আরও সংযোজন, ‘সংবাদমাধ্যমে শিরোনাম করার তাগিদে বিষয়টিকে অন্য ভাবে দেখানো হয়। কিন্তু এ ছাড়াও সৃজিত এমন কিছু কথা বলেছে, যেগুলো না বললেও চলত। এগুলো নিজেদের ব্যাপার। মিটিয়ে নেওয়া যেত।’

এদিন অভিনেতার কাছে জানতে চাওয়া হয় আদিত‍্য চোপড়া যদি ছবির প্রস্তাব দেন তবে কি তাঁর ডাক উপেক্ষা করে সৃজিতের ছবিতে কাজ করবেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে যীশুর স্পষ্ট উত্তর দেন ‘আদিত্য চোপড়া অবশ্যই। সৃজিতও বড় ছবি করে। কিন্তু আদিত্য চোপড়ার পিছনে একটা ‘যশরাজ’ ছিল। সৃজিতের পিছনে ‘যশরাজ’ নেই। আদিত্য চোপড়া ‘যশরাজ’-এর ছবিতে যা করবে, সৃজিত তা করতে পারবে না। ওকে সেই বাজেটটাই দেওয়া হবে না।’

Related Articles

Back to top button