বিনোদনসিরিয়াল

শ্বেতার জন্মদিনের ঘরোয়া পার্টিতে রুবেল! ফের একবার মাথাচাড়া দিল সম্পর্কের গুঞ্জন

বাংলা বিনোদন জগতের দুই জনপ্রিয় অভিনেতা অভিনেত্রী হলেন রুবেল দাস (Rubel Das) এবং শ্বেতা ভট্টাচার্য (Sweta Bhatttcharya)। কিছুদিন আগেই জি বাংলার পর্দায় শেষ হয়েছে এই জনপ্রিয় জুটির সিরিয়াল ‘যমুনা ঢাকি’ (Jamuna Dhaki)। এই ধারাবাহিকে একে অপরের বিপরীতে সংগীত এবং যমুনা চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন রুবেল-শ্বেতা।

সেই থেকেই সূত্রপাত।  টেলিপাড়ায় মাঝেমধ্যেই গুঞ্জন শোনা যায় সংগীত যমুনার পর্দার প্রেম গড়িয়েছে বাস্তবে। যদি একথা আজ পর্যন্ত নিজের মুখে স্বীকার করেনি সংগীত যমুনা কেউই।কিন্তু কথায় আছে যা রটে তার কিছু তো বটে! তাই এই দুই জুটি যতই মুখে অস্বীকার করুক না কেন ব্যাপার যে কিছু একটা আছে সে কথা কিন্তু সহজে অস্বীকার করাও যায় না।
কিছুদিন আগেই অর্থাৎ চলতি মাসের শুরুর দিকে ৫ সেপ্টেম্বর রুবেলের জন্মদিন ছিল সেদিন রাত বারোটায় উইশ করা থেকে শুরু করে কেক কেটে বার্থডে সেলিব্রেট করা সবমিলিয়ে সহ অভিনেতার দিনটাকে একটু বেশিই স্পেশাল করে তুলেছিলেন শ্বেতা। সে সময় নতুন করে মাথাচাড়া দিয়েছিল শ্বেতা রুবেলের প্রেমের জল্পনা।
যদিও সে সময় একবাক্যে তা অস্বীকার করে রুবেল জানিয়েছিলেন ‘না প্রেম নয়, আমরা খুব ভালো বন্ধু বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ধারাবাহিক শেষ হওয়ার পর যোগাযোগ টা থাকে না সেভাবে। কিন্তু আমাদের ক্ষেত্রে তা হয়নি’।আর এবার পালা শ্বেতার জন্মদিনের চলতি মাসেই গত ২১ সেপ্টেম্বর ছিল অভিনেত্রীর জন্মদিন। আর তাঁর সেই জন্মদিনের ঘরোয়া পার্টিতে রুবেলের উপস্থিতি তাদের সম্পর্কের গুঞ্জনে যেন আরও একবার ঘৃতাহুতির মতো কাজ করলো।
শ্বেতার মতোই রুবেলও তার জন্মদিনে মাঝরাতে কেক নিয়ে হাজির হয়েছিলেন তাঁর বাড়িতে।অভিনেত্রীর পরিবারে সদস্যদের পাশাপাশি শ্বেতার জন্মদিনে সেলিব্রেশানে হাজির হয়েছিলেন রুবেলও। গতকালই জন্মদিনের সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করেছিলেন অভিনেত্রী। সেখানে রুবেলের ছবি দেখতে তাদের সম্পর্ক নিয়ে তৈরী হয়েছে নতুন জল্পনা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের ছবি দেখে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছেন অনুরাগীরা।
যদিও গোপন সূত্রের খবর শ্বেতা এবং রুবেল দুজনেই প্রেম করছেন কিন্তু আলাদা আলাদা মানুষের সাথে। বহু বছর ধরে এই সম্পর্কে রয়েছেন তারা।  কিন্তু তাদের মধ্যে সম্পর্কের গুঞ্জন রটার পর থেকে সেই সম্পর্কে ফাটল ধরাতে শুরু করেছিল। তাই একটা সময় যমুনা ঢাকি সিরিয়ালের সেটেও নাকি একে অপরকে এড়িয়ে চলতে শুরু করেছিলেন তারা। কিন্তু এখন যে পরিস্থিতি আবার আগের মতো স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে তা বোঝাই যাচ্ছে দুই অভিনেতা অভিনেতা অভিনেত্রী কান্ড কারখানা দেখে।

Related Articles

Back to top button