গসিপবিনোদনসিরিয়াল

মাঝপথেই ছাড়েন ‘ইষ্টি কুটুম’, ‘নাহলে মরে যেতাম!’ এক দশক পর বিস্ফোরক বাহা অভিনেত্রী রণিতা দাস

একসময়ের জনপ্রিয় বাংলা সিরিয়াল ‘ইষ্টি কুটুম (Isti Kutum)’। সিরিয়ালের বাহামনি আর অর্চিবাবুকে আজও মনে রেখেছে দর্শকেরা। সিরিয়ালে বাহামনি চরিত্রে অভিনয় করেছিলে অভিনেত্রী রণিতা দাস (Ranieeta Dash)। বাহামনি চরিত্রে অভিনয়ের জেরে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন রণিতা। যেমন অভিনয় তেমনি কথা বলার ভঙ্গিমা আরও বেশি পছন্দের হয়ে উঠেছিল দর্শকদের কাছে। কিন্তু  হটাৎ করেই সিরিয়েল ছেড়ে দেন অভিনেত্রী।

ইষ্টি কুটুম সিরিয়ালের পর রীতিমত গায়েব হয়ে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। ছোটপর্দা থেকে টলিউড কোথাওই আর  দেখা মেলেনি তার। চরম জনপ্রিয় হয়েও হটাৎ করেই অভিনয় ছেড়ে চলে যাওয়া নিয়ে বেশ চর্চা থেকে সমালোচনা হয়েছিল। কারোর মতে হটাৎ করেই বেশ জনপ্রিয়তা পেয়ে মাথা খারাপ হয়ে গিয়েছিল অভিনেত্রীর।

তবে ‘ইষ্টি কুটুম’ কিন্তু প্রথম সিরিয়াল ছিল না, এর আগে ‘ধন্যি মেয়ে’ সিরিয়ালে দকেহা গিয়েছিল রণিতাকে। তবে সেই সিরিয়ালে এমন জনপ্রিয়তা মেলেনি। বাহা চরিত্রে অভিনয়ই রণিতাকে খ্যাতি এনে দিয়েছিল। কিন্তু হটাৎ এমন জনপ্রিয়তা সত্ত্বেও কেন সিরিয়াল তথা অভিনয়ের জগৎ ছেড়ে চলে গেছিলেন অভিনেত্রী! সম্প্রতি এই বিষয়ে মুখ খুলেছেন স্বয়ং রণিতা। যেখানে জানা যাচ্ছে একপ্রকার বাধ্য হয়েছিলেন অভিনেত্রী সিরিয়ালটি ছাড়ার জন্য।

রণিতার মতে, শারীরিক অসুস্থতার কারণেই অভিনয় থেকে সরে আসতে বাধ্য হয়েছিলাম। অভিনেত্রীর ওভারীতে কিছু সমস্যা দেখা গিয়েছিল। এছাড়াও হটাৎ করেই ওজন বেড়ে যাচ্ছিলো আর সাথে শিরদাঁড়ায় ব্যাথার জেরে দাঁড়াতে পর্যন্ত পারছিলেন না তিনি। যেখানে ঠিক করে দাঁড়াতেই পারছিলেন না সেখানে কিভাবে শুটিং করবেন! সেই কারণেই অভিনয় থেকে বিরতি নিতে হয়েছিল তাকে।

তবে অভিনয় থেকে হুট করে এক রণিতা সরে যাননি, সাথে আরেক সিরিয়েল ‘জল নুপুর’ ছেড়ে দিয়েছিল প্রেমিক সৌপ্তিক চক্রবর্তী। জনপ্রিয় একটা শো মাঝপথে এমন করে ছেড়ে দেওয়ায় খারাপ দৃষ্টান্ত তৈরী হয়েছিল ইন্ডাস্ট্রিতে। তাছাড়া দুজনে আলাদা কারণে কাজ ছাড়লেও সময়টা ছিল একই। তাই দুজনকেই ইন্ডাস্ট্রিতে একপ্রকার ব্যান করে দেওয়া হয়। সৌপ্তিককে একাধিক  ছবির কাজ ছেড়ে  দিতে হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button